যশোরের কেশবপুর উপজেলায় জুয়ার আসরে বাধা দেওয়ায় মাদকসেবীরা এক ব্যক্তির গাছ কেটে ফেলেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
জানা গেছে, উপজেলার দোরমুঠিয়া গ্রামের শরিফুল ইসলাম বায়সা এলাকায় শ্মশানের পাশে তাঁর জমিতে বিভিন্ন প্রজাতির গাছের চারা লাগিয়েছিলেন। এই জমিতে শ্রীরামপুর এলাকার কিছু বখাটে প্রতিদিনই মাদক সেবন করে এবং জুয়ার আসর বসায়।
শরিফুল ইসলাম অভিযোগ করেন, গত সোমবার বিকেলে তাঁর জমিতে গিয়ে দেখেন, পাঁচ-ছয় বখাটে জুয়া খেলছে। তিনি তাদের সেখানে মাদক সেবন ও জুয়া খেলতে নিষেধ করেন। এতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে তাঁকে গালিগালাজ করে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে তিনি ওই জমিতে গিয়ে দেখেন, ২০টির মতো আম, কাঁঠাল, শিশু ও কলাগাছ কেটে ফেলা হয়েছে। শরিফুল জানান, এ ঘটনায় তিনি কেশবপুর থানায় অভিযোগ করবেন।
গ্রামবাসী জানান, মাদকসেবীরা ওই জায়গায় প্রতিদিনই সকাল থেকে রাত পর্যন্ত জুয়ার আসর বসায়। কেউ এর প্রতিবাদ করলে মাদকসেবীরা মারপিট করে। প্রায়ই ওই এলাকায় সন্ধ্যার পর ছিনতাইয়ের ঘটনাও ঘটে।
কেশবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল জলিল বলেন, এ ব্যাপারে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পাওয়া গেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন