বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) নতুন এই নির্দেশনা দিয়েছে। বিটিআরসির ২৫৫তম সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ১ ডিসেম্বর বিটিআরসি এ–সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

বিটিআরসির প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, টিভ্যাস নীতিমালা অনুযায়ী নির্ধারিত সময়ে রাজস্ব আদায় নিশ্চিত করতে হবে। এ লক্ষ্যে প্রতি তিন মাস (কোয়ার্টার) শেষ হওয়ার সাত দিনের মধ্যে মুঠোফোন অপারেটররা টিভ্যাস নিবন্ধন সনদধারীদের বিটিআরসির পাওনা পরিশোধের জন্য নির্দেশনা দেবে। এ সময়ের মধ্যে টিভ্যাস সনদধারীরা রাজস্ব দিতে ব্যর্থ হলে বিলম্ব ফি প্রযোজ্য হবে। এই বিলম্ব ফি মুঠোফোন অপারেটরদের পরিশোধ করতে হবে।

বিটিআরসি বলছে, টিভ্যাস নীতিমালা অনুযায়ী প্রতি তিন মাস পর পরবর্তী ১০ দিনের মধ্যে রাজস্ব (রেভিনিউ শেয়ারিং) ও মূসক বিটিআরসিতে পরিশোধযোগ্য। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে এ রাজস্ব পরিশোধে ব্যর্থ হলে ১৫ শতাংশ হারে বিলম্ব ফি প্রযোজ্য।

দেশের চারটি মুঠোফোন অপারেটরের গ্রাহকদের ওয়েলকাম টিউন, নিউজ অ্যালার্ট, ধর্মবিষয়ক অ্যালার্ট, গান, ভিডিও, মুঠোফোনের গেম ইত্যাদি সেবা দিয়ে থাকে টেলিকমিউনিকেশন ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস। এগুলোকে বলা হয় টিভ্যাস। বিটিআরসির সনদধারী বিভিন্ন টিভ্যাসসেবা প্রতিষ্ঠান এই সেবা মুঠোফোন অপারেটরদের দেয়।