জয়পুরহাট রেলওয়ে স্টেশনের অদূরে তেঘরবিশা গ্রামের কুমারপাড়া এলাকায় গত শনিবার ট্রেনে কাটা পড়ে মৃত্যু হওয়া মা ও মেয়ের পরিচয় মিলেছে। নওগাঁ জেলা হাসপাতালে মা ও মেয়ের লাশের ময়নাতদন্ত শেষে গতকাল রোববার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
তাঁরা হলেন ক্ষেতলাল উপজেলার ভাসিলা গ্রামের নিজাম উদ্দীনের মেয়ে নাসরিন আক্তার (২৫) ও তাঁর দেড় বছর বয়সী নাতনি হুমাইরা বেগম।
নাসরিনের চাচা খলিলুর রহমান বলেন, তিন বছর আগে কালাই উপজেলার পাঁচগ্রামের ছানা ব্যবসায়ী জাহিদুল ইসলামের (৩২) সঙ্গে নাসরিনের বিয়ে হয়। শনিবার রাত ১০টার দিকে জাহিদুলের ভগ্নিপতি নাসরিনের খোঁজ নিতে তাঁদের বাড়িতে আসেন। তিনি বলেন, বেলা তিনটা থেকে নাসরিন ও তাঁর মেয়ের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। বাবার বাড়িতে নাসরিন আসেননি বলা হলে তিনি চলে যান। তিনি আরও বলেন, কেন নাসরিন এভাবে আত্মহত্যা করলেন তা তাঁরা বুঝতে পারছেন না। এক বছর আগে স্বামী গালিগালাজ করলে নাসরিন রাগ করে বাবার বাড়িতে এসেছিলেন। পরে জাহিদুল এসে নাসরিনকে নিয়ে যান।
এ ব্যাপারে জানতে জাহিদুলের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তাঁকে পাওয়া যায়নি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন