ডিএনসিসি এলাকায় ছয় শতাধিক সাইনবোর্ড উচ্ছেদ

বিজ্ঞাপন
default-image

গুলশান, বনানী ও প্রগতি সরণিতে প্রায় ৬২০টি অবৈধ সাইনবোর্ড উচ্ছেদ করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ ছাড়া তাৎক্ষণিক নিলামের মাধ্যমে এসব সাইনবোর্ড ও অন্যান্য মালামাল ১ লাখ ৩৯ হাজার ৫০০ টাকায় বিক্রি করা হয়। ফুটপাত ও সড়ক দখল করে ব্যবসা করা, ট্রেড লাইসেন্স না থাকা ও অন্যান্য অপরাধে ৯৭ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের পরিচালনায় আজ বুধবার এসব বিলবোর্ড উচ্ছেদ করা হয়। গুলশান অ্যাভিনিউয়ে প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবদুল হামিদ মিয়ার নেতৃত্বে প্রায় ২৫৭টি অবৈধ সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড, ব্যানার, প্যানাফ্লেক্স ইত্যাদি উচ্ছেদ করা হয়। এ সময় ৩টি প্রতিষ্ঠানকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া অবৈধভাবে রাস্তায় পার্কিং করে রাখা ৭০টি মোটরসাইকেল সরিয়ে সড়ক জনগণের চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বনানী ১১ নম্বর সড়কে অঞ্চল-৭–এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোতাকাব্বীর আহমেদের নেতৃত্বে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় দুই শতাধিক সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড ইত্যাদি উচ্ছেদ করা হয়। এসব মালামাল তাৎক্ষণিক নিলামে ৬০ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়। এ ছাড়া সড়ক ও ফুটপাত অবৈধভাবে দখল করে জনগণের চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টির কারণে একটি প্রতিষ্ঠানকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ ছাড়া প্রগতি সরণির শাহজাদপুরে অঞ্চল-৬–এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিয়া আফরিনের পরিচালনায় উচ্ছেদ অভিযানে ১৬৩টি সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড ইত্যাদি উচ্ছেদ করা হয়। উচ্ছেদ করা এসব সাইনবোর্ড, বিলবোর্ড ইত্যাদি নিলামে ৭৯ হাজার ৫০০ টাকায় বিক্রি করা হয়। এ ছাড়া ফুটপাত ও সড়ক দখল করে ব্যবসা করা এবং ট্রেড লাইসেন্স না থাকায় ৪টি প্রতিষ্ঠানকে ৫৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন