মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, ঢাকার মাটিতে আর কোনো যুদ্ধাপরাধীর জানাজা পড়তে দেওয়া হবে না। যুদ্ধাপরাধীদের আপিল বিভাগে রায় পুনর্বিবেচনা করার ও রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার সুযোগ আইন করে বন্ধ করতে হবে।
গতকাল শনিবার রাজধানীর ধানমন্ডিতে আন্তর্জাতিক অপরাধ (ট্রাইব্যুনাল) আইন-১৯৭৩-এর অন্যতম খসড়া প্রণয়নকারী জার্মানির অধ্যাপক অটো ভন ট্রিফটার মৃত্যুতে এক স্মরণসভায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন। মন্ত্রী যুদ্ধাপরাধীদের সম্পদ বাজেয়াপ্ত করার জন্য এই আইন সংশোধনী হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন।
বাংলাদেশ হ্যারিটেজ ফাউন্ডেশন ধানমন্ডিতে এ স্মরণসভার আয়োজন করে। অধ্যাপক অটো ভন ট্রিফটার গত ১ জুন মারা যান। স্মরণসভা থেকে তাঁর স্ত্রী মারিয়া ও দুই ছেলের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন সাবেক রাষ্ট্রদূত ওয়ালিউর রহমান।
মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী বলেন, দেশ স্বাধীন হওয়ার পরও গোলাম আজমের নেতৃত্বে এক দল লোক পূর্ব পাকিস্তান পুনরুদ্ধার কমিটি করেছিল। কমিটির সদস্যদের চিহ্নিত করে শাস্তি দিতে হবে।
একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহরিয়ার কবীর বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের মামলার সাক্ষীর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে। তা না হলে একসময় ট্রাইব্যুনাল চলবে না, মুখ থুবড়ে পড়বে। তিনি অধ্যাপক অটো ভন ট্রিফটারকে রাষ্ট্রীয়ভাবে সম্মাননা দেওয়ার দাবি জানান।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0