এমনিতে এখন কোনো যানজট হওয়ার কথা না। কিন্তু সেতুতে সংস্কারকাজ চলায় যানজটে হচ্ছে। আমরা সেতুর দুপাশের গাড়ির পারাপার করার চেষ্টা করছি।’

ঢাকাগামী কয়েকজন যাত্রী বলেন, মেঘনাঘাট থেকে লাঙ্গলবন্দ পর্যন্ত যানবাহনের দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। দীর্ঘক্ষণ বসে থাকার পর অল্প অল্প করে যানবাহন এগোচ্ছে। ঈদের ছুটির এই সময়ে যানজটের ভোগান্তির কারণে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এ ব্যাপারে সওজের নারায়ণগঞ্জ কার্যালয়ের কর্মকর্তা মেহেদী ইকবাল প্রথম আলোকে বলেন, লাঙ্গলবন্দ সেতুর ছয়টি ‘এক্সপানশন জয়েন্ট’ মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ঈদের বন্ধে ট্রাক চলাচল বন্ধ থাকায় সেতুর ছয়টি ‘এক্সপানশন জয়েন্ট’ সংস্কারকাজ করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে ছয়টি এক্সপানশন জয়েন্টের মধ্যে চারটি লাগানো হয়েছে। অপর দুটি এক্সপানশন জয়েন্টের কাজ দুই ঘণ্টার মধ্যে শেষ করা হবে।

সওজের কর্মকর্তা মেহেদী ইকবাল আরও জানান, লাঙ্গলবন্দ সেতুটি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় ছয় মাস আগে মেরামতকাজ করা হয়েছিল। কিন্তু সে সময় ‘এক্সপানশন জয়েন্টের’ কাজ করা সম্ভব হয়নি। তিনি বলেন, এই পাশ লাগানোর পর পরে সেতুর চট্টগ্রামমুখী অংশের এক্সপানশন জয়েন্ট সংস্কারকাজ করা হবে। আশা করা হচ্ছে দুই ঘণ্টার মধ্যে সেতুর বন্ধ থাকা পাশটি খুলে দেওয়া সম্ভব হবে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন