বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশের প্রকৃতি, সমৃদ্ধ সংস্কৃতি, ঐতিহ্য ও বন্ধুসুলভ জনগণ পর্যটনশিল্পের বড় সম্পদ। বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় পর্যটন গন্তব্যে পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা বাংলাদেশের রয়েছে। ভবিষ্যতে দুই দেশের সহযোগিতার ক্ষেত্র উন্নয়নে পর্যটন ও সিভিল এভিয়েশন খাত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

ভিয়েতনামের মুক্তির সংগ্রামে দেশটির জনগণের প্রতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমর্থনের কথা কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করে তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ ও ভিয়েতনাম দুটি দেশেই মুক্তির জন্য দীর্ঘ সংগ্রামের পথ পাড়ি দিয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী বলেন, পর্যটনশিল্প ও এভিয়েশন খাতের উন্নয়নে দুই দেশের একসঙ্গে কাজ করার অনেক সুযোগ রয়েছে। সরাসরি ফ্লাইট চালু হলে দুই দেশের মধ্যে ব্যবসা–বাণিজ্যের প্রসার ঘটানোর পাশাপাশি জনগণের মধ্যে যোগাযোগ বাড়বে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন