বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

তথ্য প্রতিমন্ত্রীর মন্তব্য সম্পর্কে বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল জানান, জাতীয় পতাকাধারী একজন ব্যক্তির এ ধরনের বক্তব্য সমগ্র জাতিকে স্তম্ভিত করেছে।

মির্জা ফখরুল জানান, খালেদা জিয়া প্রতিহিংসামূলক আচরণের শিকার হয়ে বিদেশে সুচিকিৎসার সুযোগ না পেয়ে জীবন–মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে আছেন। ঠিক এমন সময় তাঁর পরিবারের এক নারী সদস্য তথা পরিবারের বিভিন্নজন সম্পর্কে অশ্লীল, অপপ্রচার ইতিমধ্যে নারীনেতৃত্বসহ দেশের সচেতন সব মহলের ঘৃণা কুড়িয়েছে।

মুরাদ হাসানের মন্তব্যকে হীন রাজনৈতিক দুরভিসন্ধিমূলক এবং নারী ও বর্ণবিদ্বেষী বলে অভিহিত করেন মির্জা ফখরুল। এ মন্তব্য প্রত্যাহার করে জনসমক্ষে ক্ষমা চেয়ে মুরাদ হাসানকে পদত্যাগ করার আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল।

মির্জা ফখরুল আরও জানান, অন্যথায় ভবিষ্যতে যথাসময়ে এর দাঁতভাঙা জবাব দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন