বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের অবরোধ চলার মধ্যে তিনটি জেলা থেকে আরও ১৪ জনকে আটক বা গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার রাত সাড়ে নয়টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় নাশকতায় জড়িত থাকার সন্দেহে, মামলা ও অন্যান্য ঘটনায় তাঁদের আটক করা হয়।
নাটোরের বড়াইগ্রাম থেকে গতকাল ভোরে বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের তিন নেতা-কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। তাঁরা হলেন মনির হোসেন, তোরাপ মোল্লা ও আমিনুল ইসলাম। পুলিশ বলছে, তাঁরা ট্রাক পোড়ানোসহ বিভিন্ন মামলার আসামি।
শেরপুরের শ্রীবরদীতে নাশকতার পরিকল্পনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মো. সুলতান সরকার (৩০) নামের এক যুবককে গতকাল সকালে আটক করেছে র‍্যাব। এ সময় তাঁর কাছ থেকে চারটি ককটেল উদ্ধার করার কথা দাবি করেছে র‍্যাব। সুলতান চাংপাড়া গ্রামের মৃত মোজাম্মেল হকের ছেলে।
বগুড়ায় বৃহস্পতিবার রাতে নাশকতা ও সহিংসতার মামলার আসামি জেলা বিএনপির ধর্মবিষয়ক সম্পাদক ফজলে রাব্বি ওরফে তোহাসহ বিএনপি-জামায়াতের ১০ নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার অন্যদের মধ্যে আছেন শহর যুবদলের সহসভাপতি বাদল আকতার ও শাজাহানপুর শহর ছাত্রশিবিরের সাধারণ সম্পাদক মাহীন আলম।
{প্রতিবেদন তৈরিতে সহায়তা করেছেন প্রথম আলোর সংশ্লিষ্ট এলাকার নিজস্ব প্রতিবেদকপ্রতিনিধিরা}

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন