default-image

চলমান রাজনৈতিক সংকট নিরসনে সংলাপ করে তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতি এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী। গতকাল শনিবার প্রতীকী অনশনে অংশ নিয়ে তিনি এ আহ্বান জানান।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে সংলাপে বসার দাবিতে কুড়িলে দলীয় কার্যালয়ে বেলা ১১টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত অনশন করেন সাবেক রাষ্ট্রপতি বদরুদ্দোজা চৌধুরী। তাঁর সঙ্গে দলের অর্ধশতাধিক নেতা-কর্মীও অংশ নেন।
এ সময় প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে সাবেক রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘১৯৯৬ সালে বিএনপি একটি অগ্রহণযোগ্য নির্বাচন করেছিল। তিন মাস পর তারা আরেকটি নির্বাচন দেওয়ার সাহস করেছিল। আপনি কথা দিয়েছিলেন সংবিধান রক্ষার নির্বাচন শেষে তিন মাস পর আবার নির্বাচন দেবেন। ইতিমধ্যে এক বছর পার হয়ে গেছে। এখন কথা রাখেন। তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন করার জন্য যা যা করণীয় তা করেন।’ তিনি বলেন, ‘দুই নেত্রীকে বারবার বলছি আলোচনায় বসুন। মনে হয় কানেই শোনেন না। কিন্তু এমন সময় আসবে যখন বিদেশিদের চাপে বসতে বাধ্য হবেন। তাতে দেশের মর্যাদা বাড়বে না। আমাদের জন্যও লজ্জার হবে। ’
বিএনপির হরতাল কর্মসূচির সমালোচনা করে বিকল্পধারার যুগ্ম মহাসচিব মাহী বি চৌধুরী বলেন, ‘৭২ ঘণ্টার হরতাল দেওয়ার আগে সরকারকে ৭২ ঘণ্টার সময় দেওয়া উচিত ছিল।’
অনশনে বিকল্পধারার সঙ্গে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য দেন মুসলিম লীগের সভাপতি নুরুল হক, ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (একাংশ) নেতা আবদুল আজিজ ও রুহুল আমিন গাজী, ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) যুগ্ম মহাসচিব রফিকুল ইসলাম প্রমুখ। অনশনের প্রতি সংহতি জানিয়ে সেখানে উপস্থিত হন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ জাফরুল্লাহ চৌধুরী, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমদ প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন