বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গত বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ধাপে বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলায় বাগধা ইউনিয়নে ভোট গ্রহণ হয়। স্থানীয় সূত্র জানায়, ভোটের দুদিন পর গত শনিবার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের বিজয়ী সদস্য প্রার্থী শামীম হোসেন সমর্থকদের নিয়ে মো. মোকলেস মিয়ার (৫৫) ভ্যানে করে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় পরাজিত একজন প্রার্থীর ৩০-৩৫ জন সমর্থক লাঠিসোঁটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাঁদের ওপর হামলা চালান। এতে মোকলেসসহ চার-পাঁচজন আহত হন। তাঁদের উদ্ধার করে আগৈলঝাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। গতকাল চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোকলেসের মৃত্যু হয়।

আগৈলঝাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মাজহারুল ইসলাম বলেন, মোকলেস মিয়ার মৃত্যুর ঘটনায় তাঁর পরিবার মামলা করার পর তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মাদারীপুরের কালকিনিতে নির্বাচনী সহিংসতায় আলমগীর প্যাদা (৫৫) নামের এক ব্যক্তি মারা গেছেন। গতকাল সকালে ঢাকার একটি হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়। দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনের ভোটের আগের দিন বুধবার সকালে চরদৌলতখান ইউনিয়নের মাথাভাঙ্গায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী চান মিয়া শিকদার ও দলটির বিদ্রোহী প্রার্থী মিলন মিয়ার সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে অন্তত ২৫ জন আহত হন। তাঁদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আলমগীরসহ তিনজনকে প্রথমে বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। পরে তাঁদের ঢাকার মোহাম্মদপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গতকাল আলমগীর মারা যান।

কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইসতিয়াক আশফাক বলেন, নিহত ব্যক্তির পরিবার মামলা করলে সে অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বগুড়ার শেরপুরে কুসুম্বি ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের পরাজিত প্রার্থীর এক কর্মীর ওপর হামলা চালানো হয়েছে। রোববার রাতে ইউনিয়নের গোসাইবাড়ি কলোনি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত মাসুদ রানার (৩২) বাড়ি কুসুম্বি ইউনিয়নের গোসাইবাড়ি কলোনি গ্রামে। ওই ইউনিয়নে বিজয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহ আলম। তিনি বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। মাসুদকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ধুনট উপজেলার মথুরাপুর ইউপি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হাসান আহম্মেদের ওপর হামলা হয়েছে। রোববার রাতে ইউনিয়নের উলিপুর তিনমাথা এলাকার কাশিয়াহাটা সড়কে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মথুরাপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তজা এবং স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী শফিকুল ইসলামসহ চারজনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন হাসান আহম্মেদ।

জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার তিলকপুর ইউনিয়নে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতায় পাঁচজন আহত হয়েছেন। রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার তিলকপুর রেলস্টেশনের পাশে দুই স্বতন্ত্র প্রার্থী মোজাফফর হোসেন ও সাবেক চেয়ারম্যান আজাহার আলীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। আধা ঘণ্টা ধরে চলা সংঘর্ষে এক প্রার্থীসহ পাঁচজন আহত হন। স্বতন্ত্র দুই প্রার্থী বিএনপি নেতা। বৃহস্পতিবারের ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সেলিম মাহবুব চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা মোজাফফর হোসেন হেরে যান ৭৩ ভোটে।

পটুয়াখালীর বাউফলের নওমালা ইউপি নির্বাচনে পরাজিত স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. শাহজাদা হাওলাদারের এক কর্মীর বাড়িতে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় মামলা হয়েছে। মো. বেল্লাল হোসেনের বাড়িতে আগুন ও ভাঙচুর চালানোর ঘটনায় রোববার রাতে ২৭ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাতনামা আরও ৩০-৩৫ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়। এখন পর্যন্ত চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন