ফেনী সদর হাসপাতালে দগ্ধ রোগীদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। গতকাল শনিবার ফেনীর সিভিল সার্জন মোহাম্মদ ইউছুপ এ কথা জানিয়েছেন।
ফেনীর সিভিল সার্জন ও সদর হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক মোহাম্মদ ইউছুপ সাংবাদিকদের জানান, সদর হাসপাতালের একটি কক্ষে ‘স্পেশাল কেয়ার ইউনিট’ বা বার্ন ইউনিট চালু করা হয়েছে। তিনি জানান, বার্ন ইউনিটে ছয়জন রোগী রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ইউনিটটি চালুর জন্য ফেনী সদর হাসপাতালের দুজন জ্যেষ্ঠ সার্জারি কনসালটেন্ট এবং একজন জ্যেষ্ঠ নার্সকে ১৫ দিনের বিশেষ প্রশিক্ষণের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তাঁরা প্রশিক্ষণ শেষে ফিরে এলে দগ্ধ রোগীদের আর অন্য কোথাও পাঠাতে হবে না।
ফেনী সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) অসীম কুমার সাহা জানান, গত এক মাসে ফেনী সদর হাসপাতালে পেট্রলবোমায় দগ্ধ ছয়জন রোগী এসেছেন। তাঁদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন