দেশের চলমান সংকট নিরসন ও সংঘাতপূর্ণ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য জাতীয় সংলাপের লক্ষ্যে নাগরিক প্রতিনিধিদের নিয়ে একটি কমিটি গঠনের কাজ চলছে। কমিটিতে কারা থাকছেন, তা এখনো চূড়ান্ত হয়নি। দলনিরপেক্ষ বিশিষ্ট নাগরিকদের নিয়ে এ কমিটি করা হচ্ছে বলে উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন। 
প্রধান দুই দলের অনড় অবস্থানের মধ্যে সংকট নিরসনে জাতীয় সংলাপের উদ্যোগ নিচ্ছেন বিশিষ্ট নাগরিকেরা। এরই অংশ হিসেবে গত শনিবার রাজধানীতে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার উদ্যোগে গোলটেবিল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।
উদ্যোক্তাদের অন্যতম সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) এ টি এম শামসুল হুদা গতকাল প্রথম আলোকে বলেন, সংলাপের লক্ষ্যে জাতীয় সনদসহ অন্যান্য কাজ চূড়ান্ত করার কাজ চলছে। এতে চলমান সংকটের পাশাপাশি অন্যান্য সংকটের একটি স্থায়ী সমাধানের জন্য কিছু প্রস্তাবও থাকবে। জাতীয় সনদের কপি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে তাঁদের হাতে তুলে দেবেন। পাশাপাশি অন্য সব পক্ষের সঙ্গেও তাঁরা কথা বলবেন। তিনি বলেন, কমিটি রাষ্ট্রপতিকেও সংলাপের উদ্যোগ নিতে অনুরোধ জানাবে।
উদ্যোক্তাদের একটি সূত্র জানায়, আজ–কালের মধ্যে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা বৈঠকে বসতে পারেন। সংলাপে বসানোর জন্য কমিটিতে সাবেক আমলা, ব্যবসায়ী ও শিক্ষাবিদদের থাকার সম্ভাবনা বেশি।
এ উদ্যোগে যুক্ত মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, সরকার ও বিএনপির সঙ্গে কথা বলার জন্য গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদের নিয়ে কমিটি গঠন করা হবে। রাজনীতির সঙ্গে প্রত্যক্ষ সম্পর্ক নেই এবং দলনিরপেক্ষ ব্যক্তিরা এ কমিটিতে থাকবেন। তিনি বলেন, আজ সোমবার তাঁরা আবারও বসবেন।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন