বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট কর্তৃপক্ষ জানায়, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির জাতীয় সদর দপ্তরের সহযোগিতায় দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী এই পরিবারের প্রত্যেক সদস্যকে ত্রাণসামগ্রী হিসেবে সাড়ে ৭ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ লিটার সয়াবিন তেল, ১ কেজি লবণ, ১ কেজি চিনি ও আধা কেজি সুজি দেওয়া হয়েছে।

বুধবার বেলা ১১টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট কার্যালয়ে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের চেয়ারম্যান শফিকুল আলম বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট জেলার অসহায়, দরিদ্র, প্রতিবন্ধীসহ সমাজের সব শ্রেণি–পেশার মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী অসহায় হেলাল মিয়ার পরিবারের সহয়তায় এগিয়ে আসা একটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।

ত্রাণসামগ্রী গ্রহণের পর অন্ধ হেলাল মিয়া তাঁর প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘করোনার এই সময়ে পরিবার–পরিজন নিয়ে চরম কষ্টে দিনযাপন করছি। এই দুঃসময়ে রেড ক্রিসেন্টের এই সহায়তা যেন চাঁদ হাতে পাওয়া। পরিবারের সদস্যরাসহ খুবই উপকৃত হয়েছি।’

উল্লেখ্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সদর উপজেলার নাটাই উত্তর ইউনিয়নের রাজঘর গ্রামের এই দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী পরিবারের বসবাস। পরিবারপ্রধানের নাম হেলাল মিয়া। তাঁর চার ছেলে ও চার মেয়ে। তাঁদের মধ্যে চার ছেলে, এক মেয়ে, দুই নাতি ও এক নাতনি জন্মান্ধ। এর মধ্যে বড় ছেলে সাদেকের দুই সন্তান ও ছোট ছেলে ফারুকের এক সন্তান জন্মান্ধ। বর্তমানে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরসহ আশপাশের বিভিন্ন জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে গান গেয়ে জীবিকা নির্বাহ করেন হেলাল মিয়ার পরিবারের সদস্যরা।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন