বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রবাসীদের উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা প্রতিবন্ধকতাগুলো (আরও যদি থাকে) খুঁজে বের করব। আপনাদের আশ্বাস দিচ্ছি, সেগুলোর সমাধান করার মাধ্যমে বিনিয়োগের পরিবেশকে আরও সুবিধাজনক করব।’

আওয়ামী লীগ সরকার সব সময়ই গণমুখী বলে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি জানান, তাঁরা সব সময় দেশ ও জনগণের কল্যাণে কাজ করেন।

যথাযথ চ্যানেল ব্যবহার করে বিদেশ থেকে দেশে টাকা পাঠানোর ক্ষেত্রে প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য বর্তমান সরকার প্রবর্তিত ২ শতাংশ প্রণোদনার কথাও এ সময় উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার প্রবাসী বাংলাদেশিদের সুবিধার্থে একটি পৃথক ব্যাংকও প্রতিষ্ঠা করেছে।

বাংলাদেশে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে প্রবাসীরা কিছু অসুবিধার কথা উল্লেখ করলে জবাবে শেখ হাসিনা বলেন, আসলে তিনি জানতেন না যে তাঁরা বিনিয়োগের ক্ষেত্রে কী ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন।

এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘লন্ডনে একটি রোড শো হবে, যেখানে আমি বাংলাদেশ উন্নয়ন ও বিনিয়োগ কর্তৃপক্ষকে (বিডা) বিষয়টি খতিয়ে দেখতে বলব।’

সরকারপ্রধান বলেন, বিনিয়োগের সুবিধার্থে সব বাধা দূর করতে তিনি ইতিমধ্যে বিডাকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছেন।

২০০৯ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের সংক্ষিপ্ত বর্ণনা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে প্রবাসীদের জন্য তাঁর সরকার বিশেষ ব্যবস্থার প্রস্তাব করেছে।

তবে প্রবাসীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে দেশে প্রচলিত আইন মেনে চলার অনুরোধ করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, কারণ, বিশ্বজুড়ে বিনিয়োগের জন্য কিছু নিয়মকানুন রয়েছে। তিনি আশা করেন, প্রবাসীরা এই নিয়মকানুন মেনে চলবেন।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশে বিনিয়োগ বন্ড ও প্রিমিয়াম বন্ড রয়েছে, যেখানে প্রবাসীরা বিনিয়োগ করতে পারবেন। সরকার প্রায় ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপন করছে। সেখানেও প্রবাসীরা বিনিয়োগ করতে পারবেন।

স্কটল্যান্ডে বিএনপির বিক্ষোভের বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা প্রশ্ন তোলেন, কেন তারা এটা করছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমার প্রশ্ন, আমার দোষ কী? বাংলাদেশের উন্নয়ন করেছি, দারিদ্র্যের হার কমিয়েছি, বাংলাদেশের মানুষকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করেছি।’

বাংলাদেশের আর বিদেশিদের কাছে ভিক্ষা করার দরকার নেই উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আমাদের নিজস্ব অর্থায়নে আমাদের ৯০ শতাংশের বেশি উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছি।’

শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি তাদের শাসনামলের মতো দেশকে আবার এক ভয়াবহ অবস্থার মধ্যে ফেলতে চায়। বিএনপির মতো চোরেরা ক্ষমতায় এলে বাংলাদেশ আবার অন্ধকারের যুগে নিমজ্জিত হবে।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, বিএনপি-জামায়াত জোট কখনো দেশের উন্নয়ন চায় না, এমনকি তারা বাংলাদেশের স্বাধীনতাও চায়নি।

শেখ হাসিনা বলেন, তাঁর সরকার ঢাকা-নিউইয়র্ক ও ঢাকা-টরন্টো ফ্লাইট পুনরায় চালু করার জন্য আলোচনা করছে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন