default-image

দোকান বা শপিং মলে ঢোকার পথে স্যানিটাইজার ব্যবহার বা সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ। ক্রেতা-বিক্রেতাদের যথাযথভাবে মাস্ক পরারও আহ্বান জানান তিনি।

পুলিশ সদর দপ্তর মিলনায়তনে আজ মঙ্গলবার বিকেলে দোকান মালিক সমিতির নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে আইজিপি এ আহ্বান জানান। এতে দেশের সব মহানগরের পুলিশ কমিশনার, রেঞ্জের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) এবং জেলার পুলিশ সুপারের অনলাইনে যুক্ত ছিলেন। বৈঠকে পুলিশ সদর দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আইজিপি বেনজীর আহমেদ বলেন, কেনাকাটার সময় ক্রেতা-বিক্রেতা উভয়কে অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে। দোকান বা শপিং মলের প্রবেশপথে স্যানিটাইজার বা হাত ধোয়ার ব্যবস্থা রাখতে হবে। শপিং মলে ঢোকার সময় অবশ্যই শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করতে হবে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা নিশ্চিত করতে একসঙ্গে  কোনো দোকানে বেশি লোকের প্রবেশ নিরুৎসাহিত করতে হবে। বড় বড় দোকানে ক্রেতার অবস্থান গোল চিহ্ন দিয়ে নির্দিষ্ট করে রাখতে হবে। তিনি বলেন, সরকারি বিধিনিষেধ মেনে চললে করোনা সংক্রমণ কমবে, মৃত্যুর হারও কমবে। চলমান করোনাকালে জীবন বাঁচাতে হবে, আবার জীবিকাও চালাতে হবে। এর মধ্যে সমন্বয় করে সবাইকে চলতে হবে।

বিজ্ঞাপন

বৈঠকে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন বলেন, তাঁরা প্রতিটি মার্কেটের সামনে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা অথবা স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রেখেছেন। শতভাগ মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করা হয়েছে। বড় বড় শপিং মলে জীবাণুনাশক টানেল বসানো হয়েছে। তিনি বলেন, সারা দেশে ব্যবসায়ীরা করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে অত্যন্ত সোচ্চার এবং সজাগ রয়েছেন।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন