ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানে এমন বিষয়বস্তু নিয়ে বই প্রকাশের অভিযোগে গত বছর একুশে বইমেলায় ব-দ্বীপ প্রকাশনীর স্টল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল, গ্রেপ্তার করা হয়েছিল তিনজনকে। এ বছর আগে থেকেই ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানে এমন বিষয়বস্তুসংবলিত বই চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।
গতকাল রোববার ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) সদর দপ্তরে চলতি বছরের একুশে বইমেলার নিরাপত্তা নিয়ে একটি বৈঠকের পরে ওই সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে বাংলা একাডেমি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ডিএমপি, পুলিশের বিশেষ শাখাসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।
বাংলা একাডেমির সচিব আনোয়ার হোসেন বলেন, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানে বা উন্মাদনা ছড়াতে পারে, এমন বিতর্কিত বই প্রকাশ হওয়ার আগেই তা রোধে পুলিশ ও গোয়েন্দারা কাজ করবে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।
কীভাবে এ কাজ করা হবে জানতে চাইলে ডিএমপির একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, বাংলা একাডেমি থেকে একটা প্যানেল করা হবে। আর পুলিশের বিশেষ শাখা একটি দল তৈরি করবে। তারাই কিছু (ঘরানার) বাছাই করা লেখকের বই পড়ে দেখে সিদ্ধান্ত জানাবে। সবার বই তো আর পড়া সম্ভব হবে না। যে লেখকদের এ ধরনের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অতীত রেকর্ড রয়েছে বা আশঙ্কা রয়েছে বলে মনে হয়, তাঁদের বইগুলোই পড়ে দেখা হবে।
যোগাযোগ করা হলে বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির সভাপতি এবং অন্যপ্রকাশের স্বত্বাধিকারী মাজহারুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ‘লেখালেখির স্বাধীনতার সুযোগ নিয়ে কোনো ধর্ম, বর্ণ বা গোত্রকে আঘাত হানে এমন কিছু লেখা কারোরই উচিত নয়। কিন্তু এগুলো পুলিশ নজরদারি করবে, এ বিষয়টাকেও আবার আমরা স্বাগত জানাতে পারছি না। প্রথমত, এটা মূল্যায়নের দায়িত্ব পাঠকের। তারপরেও সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, প্রকাশক সমিতি ও বাংলা একাডেমিকে নিয়ে নজরদারির জন্য পৃথক কমিটি হতে পারত।’
প্রকাশক সমিতির আরেক নেতা বলেন, বইমেলার সবচেয়ে বড় অংশীদার হলেন প্রকাশকেরা। এর আগে বাংলা একাডেমিতে সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছিল নিরাপত্তা সভায় প্রকাশকদের প্রতিনিধিও থাকবেন। কিন্তু গতকালের বৈঠকে প্রকাশকদের পক্ষ থেকে কেউ ছিলেন না।
যোগাযোগ করা হলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন প্রথিতযশা প্রকাশক বলেন, এভাবে সব বই পড়ে দেখা অসম্ভব। এগুলো যত কম নাড়াচাড়া হবে তত ভালো। এটা লেখক-প্রকাশকদের ওপর একটা উটকো চাপ।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0