বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, আজ বাদ এশা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে অধ্যাপক আফসার আহমদের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। আগামীকাল রোববার মানিকগঞ্জে তাঁর নিজ বাসভবনে দ্বিতীয় জানাজা শেষে সেখানেই দাফন করা হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ সূত্রে জানা যায়, অধ্যাপক আফসার আহমেদের জন্ম ১৯৫৯ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলার উত্তর জামশায়। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন তিনি। এরপর ‘মধ্যযুগের বাঙলা আখ্যান কাব্যের আলোকে বাংলাদেশের নৃগোষ্ঠী নাট্য’ শীর্ষক অভিসন্দর্ভের জন্য তিনি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন।

আফসার আহমেদ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে প্রভাষক হিসেবে শিক্ষকতা শুরু করেন। পরে ১৯৮৬-৮৭ শিক্ষাবর্ষে নাট্যকার সেলিম আল দীনের সঙ্গে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশের প্রথম পূর্ণাঙ্গ নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ প্রতিষ্ঠা করেন। এরপর পর্যায়ক্রমে বিভাগের সভাপতি, বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ও মানবিক অনুষদের ডিন, প্রক্টর, সিনেট-সিন্ডিকেটের নির্বাচিত সদস্য এবং সবশেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। আফসার আহমদ একাধারে কবি, নাট্যকার, অনুবাদক, গবেষক ও সাহিত্য সমালোচক।

আফসার আহমেদ স্ত্রী, এক কন্যা, অগণিত শিক্ষার্থী ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তাঁর মৃত্যুতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ফারজানা ইসলাম তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন