default-image

ব্যবহৃত গ্লাভস পুনরায় বিক্রির জন্য প্যাকেটজাত করা হচ্ছিল রাজধানীর পান্থপথ এলাকায় একটি ভবনে। এসব প্যাকেটে নাম বসিয়ে দেওয়া হচ্ছিল বিশ্বের নামীদামি সব ব্র্যান্ডের। র‍্যাবের অভিযানে আজ সোমবার সেই গ্লাভসগুলো জব্দ করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানের মালিককে জরিমানা করা হয়েছে ১০ লাখ টাকা।

পুরোনো গ্লাভস বিক্রি করা এই প্রতিষ্ঠানটির নাম এএসএম ট্রেডিং। এর মালিক এস এম মুসা (২৭)। তাঁর বিস্তারিত পরিচয় র‍্যাব জানায়নি। ওষুধ প্রশাসন এবং র‍্যাব–২–এর সহযোগিতায় র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু এই অভিযান পরিচালনা করেন।

পলাশ কুমার বসু প্রথম আলোকে বলেন, আসলে না দেখলে বিষয়টি বোঝা যাবে না। শত শত গ্লাভস এখানে মেঝেতে পড়ে ছিল। ব্যবহৃত এই গ্লাভসগুলো ‘প্রসেসিং’ করে পুনরায় বিক্রি করার জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছিল। যেসব প্যাকেটে এই গ্লাভসগুলো ঢোকানো হচ্ছিল, সেগুলোও নকল। নামীদামি সব ব্র্যান্ডের নাম দিয়ে প্যাকেটগুলো বানানো হয়েছে। এগুলোর গায়ে দামও লেখা নেই। এই দুঃসময়ে গ্লাভস নিয়ে এমন কাজ ভাবা যায় না। একটি ভবনের দুটি ফ্লোর নিয়ে কাজগুলো করা হচ্ছিল। পুরোটাই সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে।

পলাশ কুমার বসু বলেন, ভোক্তা অধিকার আইন ও ওষুধ আইন অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানের মালিক এস এম মুসাকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা বা অনাদায়ে বিনাশ্রমে তিন মানের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। মুসা ১০ লাখ টাকা জরিমানা দিয়েছেন।

মালিকের পুরো পরিচয় জানতে চাইলে পলাশ কুমার বসু বলেন, এটি নিয়ে গোয়েন্দারা কাজ করছেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0