রাজধানীতে এক গোলটেবিল বৈঠকে বক্তারা বলেছেন, অনেক বাধা। তবে যোগ্যতা আর আত্মবিশ্বাসে ভর করে এগিয়ে চলছেন নারীরা। পাচ্ছেন সফলতা। নারীর এ সাফল্যের পেছনে পুরুষেরাও ইতিবাচক ভূমিকা রাখছেন। তাঁদের সহযোগী মনোভাব নারীকে সমাজে আরও প্রতিষ্ঠিত করছে।
আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে গতকাল ‘নারী উদ্যোক্তাদের সাফল্যে পুরুষের ভূমিকা’ শিরোনামে এই গোলটেবিল হয় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে। এর আয়োজন করে উইমেন এন্ট্রাপ্রেনিউরস অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ। বৈঠকে বক্তারা বলেন, সমাজের বেশির ভাগ জায়গায় নারীকে এখনো আলাদাভাবে দেখা হয়। এ ধরনের প্রবণতা থেকে বের হয়ে আসতে হবে। আশার কথা, অনেক পুরুষ ঘরে ও বাইরে নারীকে নানাভাবে সহযোগিতা করেন। উৎসাহিত করেন নারীকে আত্মনির্ভরশীল হতে।
গোলটেবিলে অনেক নারী উদ্যোক্তা তাঁদের সফলতার পেছনে পুরুষের ভূমিকা ব্যাখ্যা করেন। উদ্যোক্তা আফসানা আসিফ বলেন, ‘আমার সফলতার পেছনে ৯০ শতাংশ অবদান স্বামীর। তবে সফল হতে সহযোগিতার সঙ্গে নির্দিষ্ট পরিকল্পনা ও কঠোর পরিশ্রম দরকার।’ উদ্যোক্তা মেহজাবিন হাশিম বলেন, উদ্যোক্তাদের নানা ধরনের চাপ সামলাতে হয়।
সংগঠনটির সভাপতি নাসরিন রব রুবা বলেন, নারীদের পথচলাকে মসৃণ করতে পুরুষের সহায়ক ভূমিকা খুব জরুরি।
সংগঠনের সহসভাপতি নাদিয়া বিনতে আমিন বলেন, ব্যবসা করতে নারীর হাতে পুঁজি দিতে ভয় পায় পরিবার। অথচ উদ্যোক্তা হিসেবে নারীরা সফল। ব্যাংকগুলোও সহজে ঋণ দিতে চায় না।
গোলটেবিল সঞ্চালনা করেন নির্বাহী কমিটির সদস্য নিলুফার করিম।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন