বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত বছরের ১২ মে সরাসরি ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের জিটুপি পদ্ধতিতে নগদ আর্থিক সহায়তা প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন করেছিলেন।

এবারের নগদ আর্থিক সহায়তা দেওয়ার বিষয়টি ২০২০-২১ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটে অর্থ বিভাগের বাজেটের অধীন ‘করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় তহবিলে’ বরাদ্দ করা অর্থ থেকে নির্বাহ করা যাবে। প্রস্তাবটি বিবেচিত হলে আগের অভিজ্ঞতার আলোকে অর্থ বিভাগের তথ্যভান্ডারে সংরক্ষিত তালিকায় অন্তর্ভুক্তদের অতি অল্প সময়ে অর্থ দেওয়া যাবে।

কোভিড-১৯–এর বিস্তার রোধকল্পে ১৪ এপ্রিল থেকে কাজ ও চলাচলে বিধিনিষেধ আরোপ করার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত দিনমজুর, কৃষক, শ্রমিক, গৃহকর্মী, মোটরশ্রমিকসহ অন্যান্য পেশায় নিয়োজিত ব্যক্তিদের পুনরায় আর্থিক সহায়তা দেওয়ার বিষয়টি বিবেচনা করা হয়। তাঁদের তখন আড়াই হাজার করে টাকা দেওয়ার সুপারিশ করা হয়।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন