default-image

নোয়াখালী সদর উপজেলার জ্বালানি তেলের ব্যবসায়ী আরিফ হোসেনকে (২৮) হত্যার দায়ে দুজনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ রোববার দুপুরে নোয়াখালীর অতিরিক্ত দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মোহাম্মদ ফারুক এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামি হলেন চরদরবেশ গ্রামের আরিফুর রহমান ওরফে পিয়াস ও মোরশেদ আলী ওরফে সুমন। তাঁরা দুজনই পলাতক।

আদালত দুজনকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছর করে বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন। এ ছাড়া দণ্ডবিধির ৪১১ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে উভয় আসামিকে তিন বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড এবং ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. জাকারুল ইসলাম হত্যা মামলায় দুজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। প্রথম আলোকে তিনি বলেন, ব্যবসায়ী আরিফ অন্য ভাইদের সঙ্গে জ্বালানি তেলের ব্যবসা করতেন। ২০১৪ সালের ১৭ এপ্রিল তেল বিক্রির টাকা তোলার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় নিহত আরিফের ভাই আমির হোসেন সুধারাম থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

পরের দিন ১৮ এপ্রিল চরদরবেশ গ্রামে আসামি আশিকুর রহমান ওরফে পিয়াসের বসতঘরের পাশের কচুখেত থেকে মাটি খুঁড়ে নিখোঁজ আরিফের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ওই দিনই আমির হোসেন বাদী হয়ে আশিকুর রহমান ও মোরশেদ আলীসহ ছয়জনকে আসামি করে সুধারাম থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন মো. বোরহান আহমেদ ও মাহমুদ হাসান। আর আসামিপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন হারুনুর রশিদ হাওলাদার ও স্বপন চন্দ্র পাল।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন