default-image

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার কাওরাইদ স্টেশন এলাকায় গতকাল বৃহস্পতিবার ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস ট্রেনের ইঞ্জিন লাইনচ্যুত হয়। এতে ঢাকা-ময়মনসিংহ পথে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। নয় ঘণ্টা পর রাত সোয়া আটটার দিকে আবার ট্রেন চলাচল শুরু হয়।
দুর্ঘটনার শিকার ট্রেনটির পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বেলা সোয়া ১১টার দিকে পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা কাওরাইদ স্টেশনের আউটার সিগন্যাল এলাকায় সংকেত দেওয়া ছাড়াই রেলপথে একটি ট্রলি নিয়ে কাজ করছিলেন। ট্রেনটি সুতিয়া নদীর ওপর সেতু পার হয়ে কাছাকাছি চলে এলে তাঁরা হঠাৎ ট্রেনটি থামার জন্য সংকেত দেন। এ সময় চালক ব্রেক কষলে ট্রলিটি ইঞ্জিনের নিচে গিয়ে আটকে যায় এবং ইঞ্জিনের চাকা লাইনচ্যুত হয়।
কাওরাইদ স্টেশনের মাস্টার ইমদাদুল হক জানান, দুর্ঘটনার সময় ট্রেনটির কিছু অংশ ময়মনসিংহের গফরগাঁও ও গাজীপুরের শ্রীপুরের সঙ্গে সংযোগকারী সেতুর ওপর এবং ইঞ্জিনসহ কিছু অংশ গাজীপুরের কাওরাইদ এলাকায় অবস্থান করে। এ সময় ইঞ্জিনের নিচে ট্রলিটি আটকে থাকতে দেখা যায়।
জানতে চাইলে জয়দেবপুর রেলওয়ে জংশনের স্টেশনমাস্টার সাইদুল ইসলাম বলেন, ট্রেনের ইঞ্জিনের চাকা লাইনচ্যুত হলেও বগিগুলো লাইনেই ছিল। এ সময় উত্তরবঙ্গগামী ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে এবং বিভিন্ন স্টেশনে কয়েকটি ট্রেন যাত্রাবিরতি করে। ঢাকা ও ময়মনসিংহ থেকে উদ্ধারকারী দল পৌঁছে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ইঞ্জিনটি উদ্ধার করে। পরে রাত সোয়া আটটা থেকে ট্রেন চলাচল শুরু করে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন