বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সিআইডির জমা দেওয়া প্রতিবেদন প্রসঙ্গে পরীমনির আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত প্রথম আলোকে বলেন, পরীমনির মামলায় তার ব্যক্তিগত গাড়ি, আইফোনসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় মোট ১৬ প্রকারের জিনিসপত্র জব্দ করা হয়। গাড়িসহ অন্যান্য আলামত ফেরত চেয়ে ১৫ সেপ্টেম্বর আবেদন করা হয়। আদালত শুনানি নিয়ে গাড়ির মালিকানা যাচাই করে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন। আদালতের নির্দেশে গতকাল সিআইডি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। সেই প্রতিবেদনে জব্দ করা গাড়ির মালিক পরীমনি, সেটি উল্লেখ রয়েছে।

আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত জানান, পরীমনির গাড়িসহ অন্যান্য আলামত ফেরত চেয়ে আগামীকাল আবেদন করবেন।

এর আগে পরীমনির আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত আদালতে বলেছিলেন, পরীমনির আইপ্যাড, মোবাইল ফোনসহ অন্যান্য জিনিসপত্রও (আলামত) জব্দ করা হয়েছে। এসব প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র না থাকায় পরীমনি এখন নানান সমস্যায় পড়ছেন। বিশেষ করে গাড়ি না থাকায় তিনি নিরাপত্তা-হুমকির মধ্যে আছেন।

গত ৪ আগস্ট পরীমনির বনানীর বাসায় অভিযান চালায় র‍্যাব। অভিযানের পর তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে তাঁর বিরুদ্ধে বনানী থানায় মামলা করে র‍্যাব। এই মামলায় পরীমনিকে প্রথমে চার দিন, দ্বিতীয় দফায় দুই দিন ও তৃতীয় দফায় এক দিনসহ মোট সাত দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। গত ৩১ আগস্ট পরীমনির জামিন মঞ্জুর করেন ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালত। পরদিন তিনি কারামুক্তি পান।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন