ঈদের ছুটির পর পাবনায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। শনিবার সন্ধ্যায় সর্বশেষ নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে জেলায় কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে ৫৭ জন, যা শুক্রবারের তুলনায় তিনগুণ। এ নিয়ে জেলায় শতক ছাড়িয়ে কোভি রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ১২৯ জনে।

নতুন শনাক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে জেলা সদরে ৩৮ জন, সুজানগরে আটজন, আটঘরিয়ায় দুজন, ভাঙ্গুড়ায় তিনজন ও ঈশ্বরদীতে ছয়জন রয়েছেন। ঈশ্বরদীতে সংক্রমিতদের একজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক। জেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সদস্যসচিব ও সিভিল সার্জন চিকিৎসক মেহেদী ইকবাল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের পাশাপাশি পরীক্ষার জন্য ঢাকাতেও নমুনা পাঠানো হচ্ছে। শনিবার সর্বশেষ ফলাফলে রাজশাহী ল্যাবের ১৪৮টি নমুনার মধ্যে ৩১ জনের পজিটিভ ও ঢাকা থেকে প্রাপ্ত ফলাফলে ১৭৮টি নমুনার মধ্যে ২৬ জনের পজিটিভ পাওয়া গেছে।

সিভিল সার্জন মেহেদী ইকবাল বলেন, সর্বশেষ নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে জেলায় একদিনে এটাই সর্বোচ্চ করোনাভাইরাস শনাক্ত। নতুন শনাক্ত ব্যক্তিদের অনেকের পরিবারে করোনায় সংক্রমিত ব্যক্তিদের সংস্পর্শে গিয়ে আক্রান্ত হয়েছেন। শনাক্ত ব্যক্তিদের মধ্যেই দুজনকে জেলা করোনা হাসপাতালে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। আটজন সুস্থ হয়েছেন। অন্যদের হোম আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। তাঁদের শারীরিক অবস্থা বুঝে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলায় প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় গত ১৬ এপ্রিল। এরপর গত দেড় মাসে জেলার নয় উপজেলায় মোট ৩৬ জনের করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। ঈদের ছুটির পর গত মঙ্গলবার একদিনে সর্বোচ্চ ১৩ জন, বুধবার তিনজন ও বৃহস্পতিবার ১ জন ও শুক্রবার ১৯ জনের করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0