default-image

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেক ইউনিয়নের দুর্গম ব্যাটলিংয়ে ভালুকের আক্রমণে পন বিকাশ ত্রিপুরা (১৮) নামে এক কিশোর গুরুতর আহত হয়েছেন। আজ রোববার তাঁকে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবির) সহযোগিতায় উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টারে করে চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

বিজিবি ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার সকালে ব্যাটলিংয়ের নিউথাংনাং গ্রামের অনল বিকাশ ত্রিপুরা ছেলে পন বিকাশ ত্রিপুরাকে নিয়ে গ্রামের পাশে একটি ছড়ায় মাছ ধরতে যান। মাছ ধরা শেষে বাপ-ছেলে বাড়ি ফিরছিলেন। এমন সময় একটি ঝোপ থেকে কালো ভালুক তাঁদের ওপর আক্রমণ করে। এতে অনল বিকাশ ত্রিপুরা পালাতে পারলেও ছেলে পন বিকাশ ত্রিপুরাকে ভালুকটি ধরে ফেলে। পরে ছেলেকে বাঁচাতে অনল বিকাশ ত্রিপুরা এগিয়ে এলে ভালুকটি পালিয়ে যায়। আহত অবস্থায় ছেলেকে উদ্ধার করে নিউ থাংনাং বিজিবি ক্যাম্পে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। আজ রোববার বিজিবি উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নিয়ে যায়। 

সাজেকের শিয়ালদাই মৌজার হেডম্যান ও ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য জৈপুই থাং ত্রিপুরা প্রথম আলোকে বলেন, নিউ থাংনাং এলাকায় একটি ভালুক বাচ্চা দিয়েছে। ছড়া থেকে মাছ ধরা শেষে বাবা ও ছেলে বাড়ি ফেরার পথে মা ভালুকের পাশ দিয়ে যাচ্ছিলেন। সে জন্য ক্ষিপ্ত হয়ে তাঁদের ওপর আক্রমণ করে। গত দুই বছরে ওই এলাকায় ছয়জন ভালুকের আক্রমণে শিকার হয়েছেন।

সাজেক ৫৪ বিজিবি জোনের জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল আল-হাকিম মোহাম্মদ নওশাদ বলেন, প্রথমে বিজিবি সদস্যরা নিউ থাংনাং ক্যাম্পে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েছেন। আজ (গতকাল) উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম সামরিক হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। আহত পন ত্রিপুরা মুখে, মাথা ও হাতে মারাত্মক আঘাত পান।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0