পিরোজপুর নতুন করে ৫০ জন করোনায় সংক্রমিত

বিজ্ঞাপন
default-image

পিরোজপুরে জেলায় নতুন করে ৫০ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। গতকাল রোববার রাতে বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজের অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের করোনা পরীক্ষাগার থেকে পিরোজপুরের সিভিল সার্জনের কাছে পাঠানো প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

এ নিয়ে জেলায় ২৯৪ জন করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হলো। গত ১৩ এপ্রিল জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলায় প্রথম এক ব্যক্তির কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়। মঠবাড়িয়ায় এ পর্যন্ত জেলার সর্বোচ্চ ৯৯ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হলো।

সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ৩০ জুন থেকে গত শনিবার (৪ জুলাই) পর্যন্ত পিরোজপুর জেলায় সংগ্রহ করা নমুনা বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজের করোনা পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়। পরীক্ষাগারে পাঠানো নমুনার পরীক্ষা শেষে গতকাল রোববার রাতে ফলাফল পাওয়া যায়। এতে পিরোজপুর সদর উপজেলার সাতজন, মঠবাড়িয়ায় ২৭ জন, কাউখালী আটজন, ভান্ডারিয়ায় পাঁচজন ও নাজিরপুরে তিনজনের করোনা পজিটিভ বলে জানা যায়।

পিরোজপুরের সিভিল সার্জন মো. হাসনাত ইউসুফ জাকী বলেন, কোভিডে আক্রান্ত রোগীদের বাড়িতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আক্রান্ত কোনো রোগীর শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে তাকে হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হবে। আক্রান্ত ব্যক্তিদের বাড়িগুলো লকডাউন (অবরুদ্ধ) করা হবে।

সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্র জানায়, এ পর্যন্ত পিরোজপুর সদর উপজেলায় ৫৭ জন, ভান্ডারিয়া উপজেলায় ৫৫ জন, মঠবাড়িয়া উপজেলায় ৯৯ জন, ইন্দুরকানি উপজেলায় ২২ জন, নেছারাবাদ উপজেলা ২২, কাউখালী উপজেলায় ২০ জন ও নাজিরপুর উপজেলায় ১৯ জনের কোভিড শনাক্ত হয়। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে পিরোজপুর সদর , নাজিরপুর, ভান্ডারিয়া, নেছারাবাদ ও ইন্দুরকানি উপজেলায় একজন করে মারা গেছেন। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৪২ জন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন