বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ডিপিএমের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী এম এ সোবহান সাংবাদিকদের বলেন, র‌্যাম্পটির পিলারসহ বিভিন্ন অংশ পরীক্ষা–নিরীক্ষা করেছেন। প্রাথমিকভাবে মনে হয়েছে, সেখানে কোনো ফাটল নেই। এই অবস্থায় হালকা যান চলাচলেও কোনো বাধা নেই। তবে ভারী যানবাহন চলাচল করতে পারবে না।

কারিগরি বিশেষেজ্ঞরা জানান, যেহেতু একটা বিষয় নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে, তাই আরও গভীর পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে। এরপর পর্যবেক্ষণসহ প্রতিবেদন প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংস্থা চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষকে দেওয়া হবে।

কারিগরি বিশেষেজ্ঞ দলে আরও ছিলেন ডিপিএমের পরিচালক শাহ জাহান আলম ও সিনিয়র স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ার সামি মোহাম্মদ রেজা।

চট্টগ্রাম নগরের বহদ্দারহাটে এম এ মান্নান উড়ালসড়কের কালুরঘাটমুখী র‍্যাম্পের পিলারে ফাটলের খবর ছড়িয়ে পড়ার পর ওই অংশে যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সোমবার রাত সাড়ে ১০টায় র‍্যাম্পের ওপর দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেয় নগরের চান্দগাঁও থানার পুলিশ। আজ বুধবার পর্যন্ত তা বন্ধ রয়েছে। তবে মূল উড়ালসড়ক এবং নিচের সড়কে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

নির্মাণকাজ শেষে চার বছর আগে এই র‍্যাম্প যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছিল। র‍্যাম্পের পিলারের ফাটলের কিছু ছবি সোমবার সন্ধ্যায় ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। এরপর তা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়। এতে আশপাশের বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

নির্মাণত্রুটি এবং ভারী যানবাহন চলাচলের কারণে র‍্যাম্পের পিলারে ফাটল দেখা দিতে পারে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী ও প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম। বিশেষজ্ঞরাও বলছেন, নকশায় ত্রুটি ও ধারণক্ষমতার বেশি ওজনের গাড়ি চলাচলের কারণে এ ফাটল হতে পারে। তবে নির্মাণকারী সংস্থা চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ) দাবি করছে, র‍্যাম্পের পিলারে কোনো ফাটল সৃষ্টি হয়নি। নির্মাণকাজের সময় দেওয়া ফোম সরে গেছে।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন