বিজ্ঞাপন

১২ বীর মুক্তিযোদ্ধা হলেন সুলতান মাহমুদ শরীফ, এ বি এম খায়রুল হক, এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী, ড. এনামুল হক, জাকারিয়া চৌধুরী, রাজিউল হাসান, আবদুল মজিদ চৌধুরী, সৈয়দ মোজাম্মেল আলী, আবুল খায়ের নজরুল ইসলাম, মাহমুদ আবদুর রউফ, আবুল হাসান চৌধুরী ও আফরাজ আফগান চৌধুরী।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ২০০২ সালের জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল আইনের ৭(ক) ধারা অনুযায়ী প্রকৃত বীর মুক্তিযোদ্ধার তালিকা, সরকারের ১৯৯৬ সালের রুলস অব বিজনেসের সিডিউল–১ (এলোকেশন অব বিজনেস) তালিকার ৪১–এর ৫ নম্বর ক্রমিকে প্রদত্ত ক্ষমতাবলে ৭৪তম সভার সিদ্ধান্ত অনুসারে প্রবাসে বিশ্বজনমত গঠন গেজেট প্রকাশ করা হলো। রোববার এ–সংক্রান্ত গেজেট প্রকাশ করা হয়।

জানতে চাইলে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপসচিব (গেজেট) রথীন্দ্র নাথ দত্ত সোমবার প্রথম আলোকে বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধকালে এসব বীর ব্যক্তি বাংলাদেশকে স্বাধীন–সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে গঠনের জন্য পাকিস্তানের ওপর চাপ সৃষ্টির জন্য প্রবাসে বিশ্বজনমত গড়ে তোলেন। তাঁদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কাগজপত্র পর্যালোচনা করে জামুকার ৭৪ সভায় সর্বসম্মতক্রমে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এর ধারাবাহিকতায় ১৮ জুলাই বীর মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে ১২ জনের নামের গেজেট প্রকাশ করা হয়। এখন থেকে তাঁরা বীর মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে বিধি অনুসারে সব ধরনের সুযোগ–সুবিধা প্রাপ্য হবেন।’

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন