ফরিদপুরে করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। আজ মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জেলার বোয়ালমারী উপজেলার চতুল ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

মারা যাওয়া ওই ব্যক্তির বয়স ৮০ বছর। তিনি একজন মুক্তিযোদ্ধা। ৭০ বছর বয়সী তাঁর স্ত্রীও করোনায় আক্রান্ত। তাঁদের করোনা শনাক্ত হওয়ার পর থেকেই বাড়িতে রেখেই চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল।

পরিবার জানায়, বৃদ্ধ ওই দম্পতি সম্প্রতি চিকিৎসক দেখাতে ঢাকার কচুক্ষেতে ছেলের বাসায় গিয়েছিলেন। গত শনিবার তাঁরা গ্রামে ফিরে আসেন। রোববার তাঁদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হলে করোনা পজিটিভি আসে।

বোয়ালমারীর চতুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরীফ মো. সেলিমুজ্জামান বলেন, করোনা রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ওই বৃদ্ধের লাশ বিকেলে বাড়ির পাশে একটি বাগানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন করা হবে।

ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান বলেন, বৃদ্ধ ওই মুক্তিযোদ্ধার লাশ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, ফরিদপুর জেলায় এ পর্যন্ত ৬১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে বোয়ালমারীতে ২১ জন, নগরকান্দায় ১৩, ফরিদপুর সদরে ১০, সদরপুর ও আলফাডাঙ্গায় ৪ জন করে, চরভদ্রাসন ও ভাঙ্গায় ৩ জন করে, মধুখালীতে ২ ও সালথায় ১ জন রয়েছেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0