করোনাভাইরাস।
করোনাভাইরাস।ছবি: রয়টার্স

ফরিদপুরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে বড় ভাইয়ের মৃত্যুর ৭ দিন পর মারা গেলেন ছোট ভাইও (৬৭)। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

বিজ্ঞাপন
এখন পর্যন্ত ফরিদপুরে ৫৬ জন কোভিড–১৯ রোগী মারা গেছেন।
সিভিল সার্জন মো. ছিদ্দীকুর রহমান, ফরিদপুর

এর আগে ৯ আগস্ট একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান বড় ভাই (৭৩)। তাদের বাড়ি ফরিদপুর শহরের টেপাখোলায়।

মৃতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, ৬ আগস্ট জ্বর, সর্দিসহ করোনাভাইরাসে সংক্রমণের বিভিন্ন উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন ছোট ভাই। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর তাঁর নমুনা পরীক্ষা করা হলে করোনা পজিটিভ আসে।

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক সাইফুর রহমান এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

ফরিদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাসুম রেজা বলেন, গতকাল রাতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এই ব্যক্তির শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

বিজ্ঞাপন

ফরিদপুরের সিভিল সার্জন মো. ছিদ্দীকুর রহমান বলেন, এখন পর্যন্ত ফরিদপুরে ৫৬ জন কোভিড–১৯ রোগী মারা গেছেন।

জেলার পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান বলেন, ফরিদপুরে করোনার প্রাদুর্ভাব অনেক বেড়ে গেছে। শনাক্তের হার বাড়লেও মানুষ সচেতন না হওয়ায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। মানুষ নিজে থেকে সচেতন না হলে এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানলে এ অবস্থার উন্নতি সম্ভব নয়।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন