বিজ্ঞাপন


এর আগে দুদক তাঁদের সম্পদের বিস্তারিত হিসাব চেয়েছিল। একবার সময় বাড়িয়ে দিলেও সাজ্জাদ দম্পতি সম্পদের হিসাব দেননি।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, মুন্সী সাজ্জাদ হোসেনকে তাঁর নিজের এবং তাঁর ওপর নির্ভরশীলদের যাবতীয় স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি, দায়-দেনা, আয়ের উৎস ও সম্পদ অর্জনের বিস্তারিত বিবরণী চেয়ে গত বছরের ১২ নভেম্বর নোটিশ নেওয়া হয়। তাঁকে নোটিশ পাওয়ার ২১ কার্যদিবসের মধ্যে সম্পদের হিসাব জমা দিতে বলা হয়। মুন্সী সাজ্জাদ ২৬ নভেম্বর নোটিশ গ্রহণ করেন। ৫ ডিসেম্বর তিনি সম্পদ বিবরণী দাখিলের জন্য সময় চেয়ে কমিশনে আবেদন করেন। কমিশন আরও ১৫ কার্যদিবস সময় বাড়িয়ে চলতি বছরের ১৯ জানুয়ারি পর্যন্ত বর্ধিত করে। এই তারিখেও তিনি সম্পদের হিসাব জমা দেননি।

মামলার অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, আদেশ প্রাপ্তির পরও সম্পদ বিবরণী দাখিল না করে মুন্সী সাজ্জাদ হোসেন দুর্নীতি দমন কমিশন আইন, ২০০৪ এর ২৬(২) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। একই অভিযোগে মুন্সী সাজ্জাদের স্ত্রী ফারজানা হোসাইনের বিরুদ্ধেও মামলা করা হয়।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন