বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলায় গতকাল শনিবার একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি বসতবাড়ির বারান্দায় উঠে গেলে দুজন নিহত হন। পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় গতকাল সড়ক দুর্ঘটনায় এক স্কুলছাত্র ও গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে গত শুক্রবার এক শিশু নিহত হয়। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর:
বগুড়া: রংপুর-ঢাকা মহাসড়কের শাজাহানপুর উপজেলার নয়মাইল এলাকায় গতকাল দুপুর ১২টার দিকে একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারায়। এ সময় ট্রাকটি তিনজন পথচারী ও একজন মোটরসাইকেল আরোহীকে চাপা দিয়ে মহাসড়কের পাশের একটি বসতবাড়ির বারান্দায় উঠে যায়। এতে পথচারী ধুনট উপজেলার ঈশ্বরঘাট গ্রামের পরিবহনশ্রমিক আবদুল আজিজ (৫৫), শাজাহানপুর উপজেলার জামালপুর গ্রামের আশরাফ আলীর স্ত্রী হাওয়া বেগম (৩৫) ও হাওয়া বেগমের শাশুড়ি আনোয়ারা বেওয়া (৬০) এবং মোটরসাইকেল আরোহী বগুড়া ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক ইদ্রিস আলী (৪০) আহত হন। দুর্ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে আবদুল আজিজ ও হাওয়া বেগম মারা যান। শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল মান্নান বলেন, ট্রাকটি আটক করা হয়েছে। নিহত দুই পথচারীর লাশ ময়নাতদন্ত শেষে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
পঞ্চগড়: তেঁতুলিয়া উপজেলার তেঁতুলিয়া-বাংলাবান্ধা মহাসড়কের রণচণ্ডী এলাকা দিয়ে গতকাল সকালে বায়েজিদ শাহ (৮) নামের এক শিশু রাস্তা পার হচ্ছিল। এ সময় একটি ট্রাক তাকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। সে রণচণ্ডী কিন্ডারগার্টেনের নার্সারি শ্রেণির শিক্ষার্থী। সে রণচণ্ডী গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে।
গাইবান্ধা: গোবিন্দগঞ্জ-মহিমাগঞ্জ সড়কের গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার শোলাগাড়ি এলাকায় গত শুক্রবার বিকেলে সারবোঝাই একটি ট্রাক্টরের চাপায় খুকুমণি (৯) নামের এক শিশু নিহত হয়েছে। সে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার তরনিপাড়া গ্রামের জয়নাল আবেদিনের
মেয়ে। গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি জাহিদুল ইসলাম জানান, বিকেল পাঁচটার দিকে শোলাগাড়ি এলাকায় সড়ক পার হওয়ার সময়
একটি ট্রাক্টর খুকুমণিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই সে মারা যায়। ট্রাক্টরটি আটক করা হয়েছে। চালক ও তাঁর সহকারী পলাতক রয়েছেন। এ নিয়ে থানায় মামলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন