default-image

রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম বলেছেন, যমুনা নদীর ওপর নির্মিত বঙ্গবন্ধু সেতুর পাশেই সরকার বঙ্গবন্ধু রেলসেতু নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে। যেদিন থেকে নির্মাণকাজ শুরু হবে, তার চার বছরের মধ্যে এ সেতুর কাজ সম্পন্ন করা হবে। তিনি আশা প্রকাশ করেন, আগামী মার্চ মাসে এই নির্মাণকাজ শুরু হবে।

আজ মঙ্গলবার সকালে টাঙ্গাইলের যমুনা নদীর ওপর প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু রেলওয়ে সেতু নির্মাণের স্থান পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। মন্ত্রী জানান, সেতুর নির্মাণকাজ দুই ভাগে হবে। একটি ভাগ হবে নদীর পূর্ব অংশে, অপরটি পশ্চিম অংশে।

নুরুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধু রেলসেতু নির্মাণের টেন্ডার প্রক্রিয়া ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। জাপানের তিনটি কোম্পানি টেন্ডারে অংশ নিয়েছে। যে কোম্পানিটি প্রথম হবে তারাই এ সেতুর নির্মাণকাজ করবে। মন্ত্রী আশা করেন, আগামী ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীর অনুষ্ঠান শুরুর আগে বা পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেতুর পূর্ব পাড়ে বঙ্গবন্ধু রেলসেতুর নির্মাণকাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।

এ সময় টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, রেলওয়ে বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বঙ্গবন্ধু সেনানিবাসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন