বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ ছাড়া গত বছর অভিযান চালিয়ে ২ কোটি ২৪ লাখ ৪০ হাজার ৯টি ইয়াবা বড়ি, তিন লাখ ৩১ হাজার ৭৮৫ বোতল ফেনসিডিল, ২ লাখ ১৩ হাজার ৯৮৯ বোতল বিদেশি মদ, ৩ হাজার ২৬৮ লিটার বাংলা মদ, ১ লাখ ৩১ হাজার ৮৯৯ ক্যান বিয়ার, ১৯ হাজার ৪৯২ কেজি গাঁজা, ১৩৯ কেজি হেরোইন, ২ লাখ ২৪ হাজার ৬৫৭ টি নেশা জাতীয় ও উত্তেজক ইনজেকশন, নেশাজাতীয় ২ লাখ ৩৭ হাজার ৫০৬ টি এ্যানেগ্রা ট্যাবলেট, ৬৮ হাজার ৪৭ টি ইস্কাফ সিরাপ, ৭ হাজার ১৬৯টি এমকেডিল এবং ৬০ লাখ ৯২ হাজার ১৮৪ বিভিন্ন নেশাজাতীয় ট্যাবলেট জব্দ করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জব্দ করা অন্যান্য চোরাচালান দ্রব্যের মধ্যে রয়েছে ৫০ কেজি ৪৩৩ গ্রাম সোনা, ৩২১ কেজি রুপা, ৫৫ হাজার ৯৪৭টি শাড়ি ইত্যাদি। বিজিবি গত বছরে ৮৫ টি ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান, ৬০টি প্রাইভেটকার-মাইক্রোবাস, ৮০টি পিকআপ, ৩৬৮টি সিএনজি চালিত অটোরিকশা-ইজিবাইক এবং ১ হাজার ১০৩টি মোটরসাইকেল জব্দ করে।

সীমান্তে বিজিবির অভিযানে ইয়াবাসহ বিভিন্ন ধরনের মাদক পাচার ও অন্যান্য চোরাচালানে জড়িত অভিযোগে ৩ হাজার ৫৯৯ জন বাংলাদেশি নাগরিক, অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমের দায়ে ২ হাজার ২৪৪ জন বাংলাদেশি নাগরিক ও ৮৬ জন ভারতীয় নাগরিককে আটক করে। পরে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন