বজ্রপাতে বাবার সামনে প্রাণ গেল ছেলের

বিজ্ঞাপন
default-image

পাওয়ার টিলার দিয়ে জমি চাষ করছিলেন কৃষক জাহিদুল ইসলাম (২১)। পাশে ছিলেন তাঁর বাবা শফিয়ার রহমান। মঙ্গলবার দুপুরে বজ্রপাতে বাবার সামনেই মারা গেছেন ছেলে জাহিদুল। ঘটনাটি ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার রাঢ়ীপাড়া গ্রামের। তাঁরা বাবা-ছেলে একসঙ্গে রাঢ়ীপাড়া গ্রামের খেতে কাজ করছিলেন।

স্থানীয় বাসিন্দা আইয়ুব হোসেন জানান, দুপুরে খেতে আমন ধান রোপণের জন্য জাহিদুল ইসলাম পাওয়ার টিলার দিয়ে জমি চাষ করছিলেন। খেতের অন্য পাশে কাজ করছিলেন তাঁর বাবা শফিয়ার রহমান। হঠাৎ আকাশে কালো মেঘ জমে বজ্রপাতসহ বৃষ্টি শুরু হয়। বৃষ্টির একপর্যায়ে বজ্রপাতে গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন জাহিদুল। এ সময় তাঁর বাবাসহ মাঠের লোকজন দৌড়ে এসে তাঁকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ হাসপাতালে নেওয়ার পথেই তিনি মারা যান।

কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহাফুজুর রহমান মিয়া জানান, বজ্রপাতে নিহত ওই কৃষক তাঁর বাবার সঙ্গে খেতে কাজ করছিলেন বলে জেনেছেন। এ ঘটনায় থানায় কেউ অভিযোগ করেননি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন