ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার খোশালপুর সীমান্তের ওপার থেকে কাঁটাতারের বেড়া কাটার যন্ত্রপাতিসহ বাংলাদেশের পাঁচ গরু ব্যবসায়ীকে আটক করেছে ভারতের হাঁসখালী থানার পুলিশ।
গতকাল মঙ্গলবার ভোররাতে কাঁটাতারের বেড়া কেটে ভারতের অভ্যন্তরে প্রবেশের পর ভারতের রামনগর গ্রাম থেকে পুলিশ তাঁদের আটক করে। আটক ব্যক্তিরা হলেন মহেশপুর উপজেলার মাইলবাড়িয়া গ্রামের শামছুল মণ্ডলের ছেলে বাবুল মণ্ডল, এনাম মণ্ডলের ছেলে ছটু মণ্ডল, হাসান আলীর ছেলে সুলতান হোসেন, জাহিদুল ইসলামের ছেলে তুহিন রহমান ও খোশালপুর গ্রামের লোকমান হোসেনের ছেলে কামাল হোসেন।
বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ৬ ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং কর্মকর্তা লে. কর্নেল এস এম মনিরুজ্জামান জানান, ভোররাতে অবৈধভাবে পাঁচজন বাংলাদেশি খোশালপুর সীমান্তের কাঁটাতারের বেড়া কেটে ভারতের ৫০০ গজ ভেতরে ঢুকে পড়েন।
এ সময় ভারতের হাঁসখালী থানার পুলিশ তাঁদের কাঁটাতারের বেড়া কাটার যন্ত্রপাতিসহ আটক করে।
গতকাল বেলা সাড়ে ১১টার দিকে খোশালপুর সীমান্তের জিরো পয়েন্টে বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠক হলেও তাঁদের ফেরত দেওয়া হয়নি।
পতাকা বৈঠকে বিএসএফের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এটা পুলিশের বিষয়, এখানে বিএসএফের কিছুই করার নেই। আটক ব্যক্তিদের ভারতের হাঁসখালী থানায় রাখা হয়েছে বলে বিএসএফ জানিয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন