default-image

ঢাকার র‍্যাডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেন হোটেলে ৫ থেকে ৭ ফেব্রুয়ারি ১১তম বাংলা ইন্টারভেনশনাল থেরাপিউটিকস (বিআইটি) সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এটি আন্তর্জাতিক ইন্টারভেনশনাল কার্ডিওলজি সম্মেলন।

বাংলাদেশের ইন্টারভেনশনাল কার্ডিওলজিস্ট ডা. আফজালুর রহমান ও ভারতের ইন্টারভেনশনাল কার্ডিওলজিস্ট ডা. রবীন চক্রবর্তীর নেতৃত্বে ২০১১ সাল থেকে প্রতিবছর পর্যায়ক্রমে পশ্চিমবঙ্গ ও ঢাকায় এই সম্মেলন আয়োজিত হচ্ছে। এবারের সম্মেলনে ‘বিআইটি’র অফিশিয়াল অংশীদার হিসেবে ছিল যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বিশ্বের অন্যতম বড় হৃদ্‌রোগবিষয়ক সংগঠন টিসিটি।

বিজ্ঞাপন

করোনা পরিস্থিতির কারণে বিআইটির উদ্যোক্তারা ভিন্নভাবে এবারের সম্মেলনটি আয়োজন করেন। এতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিখ্যাত হৃদ্‌রোগ বিশেষজ্ঞরা কেউ সরাসরি, কেউ ভার্চ্যুয়ালি অংশ নেন। এই চিকিৎসকদের মধ্যে ফ্রান্স থেকে অ্যালিন ক্রাইবিয়ার, থমাস কুইসেট, যুক্তরাষ্ট্র থেকে গেরি এস মিনটজ, জুয়ান এফ গ্রানাডা চরণজিৎ এস রিহাল, রমেশ ডাগুবাতি প্রশান্ত কাউল, রবার্ট এফ রাইলি, জগৎ নারুলা, জন সি জর্জ, অভিষেক দেশমুখ, ইতালি থেকে ইমাদ সেইবান, জাপান থেকে তাকাসি আকাসাকা, সোইছিরো ইবাইসাওয়া, থাইল্যান্ড থেকে নাতাবুত বোংপরাপারুদত, কানাডা থেকে সানজগ কলরা, চীন থেকে সাও-লিয়াং চেন, সিঙ্গাপুর থেকে তান হুয়ায় চেম, যুক্তরাজ্য থেকে জাস্টিন ড্যাভিস, অ্যানজেলা হোয়ে ও মালয়েশিয়া থেকে আলেক্সান্ডার লোস প্রমুখ অংশ নেন।

জুমের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত তিন দিনের এই সম্মেলনে মোট অংশগ্রহণকারী ছিলেন ৩ হাজার ৩০০ জন। আর ফেসবুকের মাধ্যমে যুক্ত হয়েছিলেন ৩০ হাজারের বেশি মানুষ। বিআইটির এই শীর্ষ সম্মেলনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সশরীর শতাধিক অংশগ্রহণকারী উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন