বান্দরবান শহরের সিদ্দিকনগর এলাকায় পাহাড় ধসে একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও চারজন। পাহাড় কাটার সময় এ ঘটনা ঘটে।
নূরুল আলম, কোহিনুর বেগমসহ বেশ কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, দুপুর ১২টার দিকে হঠাৎ তাঁরা বিকট আওয়াজ ও মানুষের চিৎকার শুনতে পান। পরে তঁারা দেখতে পান, সিদ্দিকনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনের পশ্চিম পাশে পাহাড়ের একাংশ ধসে কর্মরত কয়েকজ শ্রমিক চাপা পড়েছেন। দ্রুত মাটি সরিয়ে তাঁদের উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। এ সময় হাসপাতলের চিকিৎসক জকরিয়া (৩০) নামের এক শ্রমিককে মৃত ঘোষণা করেন। আহত শ্রমিকেরা হলেন মোহাম্মদ জিহান (৩৫), অসিউর রহমান ওরফে মুসলিম (৪৮), স্বপন দাশ ও আপন বড়ুয়া (১৮)। জিহানকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।
সিদ্দিকনগর গিয়ে দেখা যায়, পাহাড়ের মাঝ বরাবর কেটে সড়ক নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষক বলেন, পাহাড় কাটার কারণে বিদ্যালয় ভবনে ফাটল দেখা দিয়েছে।
পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের উপসহকারী প্রকৌশলী জীতেন্দ্র বড়ুয়ার দাবি, সড়ক নির্মাণের কারণে পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটেনি। তিনি বলেন, সিদ্দিকনগর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিরাপত্তার জন্য একটি প্রতিরক্ষা দেয়াল নির্মাণ করা হবে।
বান্দরবান সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শফিকুল ইসলাম বলেন, জনস্বার্থে সড়কটি নির্মাণ করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন