লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলায় বাল্যবিবাহের আয়োজন করায় বর ও কনের বাবাকে এক মাস করে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গত বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। একই সঙ্গে আদালত বরপক্ষকে দেওয়া পণের ৮০ হাজার টাকা কনেপক্ষকে ফেরত দিয়েছেন।
দণ্ড পাওয়া বর হলেন কালীগঞ্জ উপজেলার মদনপুর গ্রামের বনমালী রায়ের ছেলে প্রশান্ত রায় (২২)। গত শুক্রবার কনের বাবা ও তাঁকে লালমনিরহাট জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
আদিতমারী উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি প্রশান্ত রায়ের সঙ্গে আদিতমারী উপজেলার দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর বিয়ে ঠিক করা হয়। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় কনের বাড়িতে বাল্যবিবাহের আয়োজন করা হয়। এ সময় খবর পেয়ে আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জহুরুল ইসলাম ও একদল পুলিশ সেখানে উপস্থিত হন। এ সময় বাল্যবিবাহ আয়োজন করায় বাল্যবিবাহ নিরোধ আইনে বর প্রশান্ত রায় ও কনের বাবাকে এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন ইউএনও।
একপর্যায়ে ইউএনও বরপক্ষের লোকজনকে কনেপক্ষের দেওয়া পণের ৮০ হাজার টাকা পরদিন সকাল নয়টার মধ্যে ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দেন। গত শুক্রবার সকালেই কনের মায়ের কাছে ওই টাকা পৌঁছে দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন