বিএনপির কায়সার কামালকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ

বিজ্ঞাপন
default-image

প্রতারণার মামলায় গ্রেপ্তার বিএনপির আইনবিষয়ক সম্পাদক ও সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী কায়সার কামালকে এক দিন জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদ করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে উভয় পক্ষের শুনানি নিয়ে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবব্রত বিশ্বাস এই আদেশ দেন।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে আদালতে হাজির করে কায়সার কামালকে তিন দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার আবেদন করে কলাবাগান থানার পুলিশ।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কলাবাগান থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আওলাদ হোসেন এক প্রতিবেদন দিয়ে বলেন, রাজনীতি করার সুবাদে মামলার বাদী এবং আসামি কায়সার কামাল পূর্বপরিচিত। ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আটক হওয়ার আগে কায়সার কামাল বাদীর বাসায় আশ্রয় চান। ‘সরল বিশ্বাসে’ কায়সার কামালকে নিজের বাসায় আশ্রয় দেন বাদী। কিন্তু রাজনৈতিক সম্পর্কের অপব্যবহার করে বাদীর স্ত্রীকে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে তাঁর সঙ্গে সম্পর্ক গড়েন তিনি। সপ্তাহ তিনেক আগে বাদী দেখতে পান, কলাবাগানের নোট সার্কুলার রোডে তাঁর স্ত্রী আসামি কায়সার কামালের গাড়ি থেকে নামছেন। এই ব্যাপারে কায়সার কামালকে বোঝানোর পরও তিনি তাঁর অবস্থান থেকে সরে আসেননি।

ওই প্রতিবেদনে পুলিশ আদালতকে বলেন, গতকাল সন্ধ্যা ৫টা ১০ মিনিটে বাদী আসামি কায়সার কামালের গাড়ি অনুসরণ করতে থাকেন। কলাবাগান থানার শেলটেক টাওয়ারের সামনে বাদী দেখতে পান তাঁর স্ত্রী কায়সার কামালের গাড়িতে উঠছেন। তখন স্থানীয় জনগণের সহযোগিতা নিয়ে বাদী আসামিকে ধরে ফেলেন।

তবে কায়সার কামালের পক্ষ থেকে তাঁর আইনজীবীরা আদালতের কাছে দাবি করেন, বাদী এবং আসামি দুজনই আইনজীবী এবং পারিবারিকভাবেই পূর্বপরিচিত। রাষ্ট্রপক্ষ থেকে যা দাবি করা হয়েছে তা ঠিক নয়। এটা শুধু ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। যে ধারায় মামলা দেওয়া হয়েছে, তা জামিনযোগ্য। রিমান্ডে নেওয়ার কোনো যৌক্তিকতা নেই। তাঁকে জামিন দেওয়া হোক।

রাষ্ট্রপক্ষে আদালতে শুনানি করেন সরকারি কৌঁসুলি হেমায়েত উদ্দিন খান। আসামি কায়সার কামালের পক্ষে আদালতে শুনানি করেন রুহুল কুদ্দুস কাজল, বোরহান উদ্দিন, গোলাম মোস্তফা খান ও মকবুল ফকির। আদালত উভয় পক্ষের বক্তব্য শুনে কায়সার কামালকে এক দিন জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি দেন। বিএনপি নেতা কায়সার কামালের বিরুদ্ধে গতকাল এই মামলা দণ্ডবিধির ৪২০ ধারায় করা হয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন