default-image

ইন্দোনেশিয়ার বালিতে ১৩ তম আন্তর্জাতিক জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডে (আইজেএসও) তিনটি রুপা ও তিনটি ব্রোঞ্জ পদক পেয়েছে বাংলাদেশ দল।

রুপার পদক পেয়েছে নটর ডেম কলেজের তাহমিদ মোসাদ্দেক, স্যার জন উইলসন স্কুলের ফারদিম মুনির ও পাবনা জিলা স্কুলের এ কে এম সাদমান মাহমুদ আবির। এ ছাড়া দলের বাকি তিন সদস্য চট্টগ্রাম নাছিরাবাদ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের আহমেদ নাফিস ফারহান, কুমিল্লা জিলা স্কুলের নিহাল জুহায়ের পরশ মিয়াজী ও বিএফ শাহীন ইংলিশ স্কুলের মিরাজ আহমেদ সাদি পেয়েছে ব্রোঞ্জ পদক।

২ ডিসেম্বর থেকে এবারের আইজেএসও শুরু হয়। এবারের অলিম্পিয়াডে ৪৮টি দেশের ২৭৬ জন প্রতিযোগী অংশ নিয়েছে। উল্লেখ্য যে এই নিয়ে বাংলাদেশ দলের খুদে বিজ্ঞানীরা দ্বিতীয়বারের মতো এই অলিম্পিয়াডে অংশ নিয়েছে। দলের সঙ্গে সেখানে রয়েছেন দলনেতা বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ড. ফারসীম মান্নান মোহাম্মাদী, বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের প্রকল্প কর্মকর্তা মো. মোরশেদ আলম ও বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতির সহকারী একাডেমিক কো-অর্ডিনেটর মো. জুনায়িদুল ইসলাম।

বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি ও বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বাংলাদেশ জুনিয়র সায়েন্স অলিম্পিয়াডের মাধ্যমে সারা দেশের খুদে বিজ্ঞানীদের মধ্য থেকে এই ছয়জনকে নির্বাচিত করা হয়। আইজেএসওতে বাংলাদেশ দলের পৃষ্ঠপোষক হিসেবে রয়েছে আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড।

পদক বিজয়ীদের অভিনন্দন জানিয়ে অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবাল বলেছেন, এই সাফল্য ভবিষ্যতে বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞানের প্রতি আরও আগ্রহী করে তুলবে। তিনি আশা প্রকাশ করেন, শিক্ষার্থীরা বেশি করে বিজ্ঞানকে সমস্যা সমাধানের হাতিয়ার হিসেবে গ্রহণ করবে।

আইজেএসওতে বাংলাদেশ দলের পৃষ্ঠপোষক আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান আবদুস সামাদ লাবু পদক বিজয়ীদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের এই বিজ্ঞানযাত্রায় শরিক থাকতে পেরে ব্যাংক আনন্দিত ও গর্বিত।

বিজয়ীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাবীবুর রহমান, বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের কোষাধ্যক্ষ বিশিষ্ট বিজ্ঞানী ড. রেজাউর রহমান ও নির্বাহী পরিচালক সাজ্জাদুর রহমান চৌধুরী প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0