বিডার দেশব্যাপী অনলাইন প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের উদ্বোধন

বিজ্ঞাপন
default-image

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান বলেছেন, জার্মানির ‘জার্মান মডেল’ অনুযায়ী ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা গ্রামভিত্তিক বিভিন্ন উদ্যোগের সঙ্গে যুক্ত থাকেন। গ্রামেই কারখানা গড়ে তোলেন। এই উদ্যোক্তাদের সঙ্গে দেশটির বড় বড় উদ্যোক্তাদের লিংকেজ তৈরি করে দেওয়া হয়। বাংলাদেশেও এ ধরনের মডেল কার্যকর হতে পারে। বড় উদ্যোক্তারা মিলে একটি ক্লাবের মাধ্যমে তহবিল গঠন করতে পারেন। এ তহবিল থেকেই ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ব্যবসা শুরুর প্রাথমিক মূলধন দেওয়া হলে মূলধনের যে সমস্যা তারও সমাধান হবে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীনে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) বাস্তবায়নাধীন ‘উদ্যোক্তা সৃষ্টি ও দক্ষতা উন্নয়ন’ প্রকল্পের দেশব্যাপী ‘অনলাইন প্রশিক্ষণ কার্যক্রম’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গতকাল শনিবার প্রধান অতিথির বক্তব্যে সালমান এফ রহমান এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে জুমের মাধ্যমে তিনি অনুষ্ঠানে যুক্ত হন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়েছে, দেশে করোনাভাইরাসের বিস্তারে দেশের ৬৪ জেলায় শিক্ষিত বেকার তরুণদের উদ্যোক্তা সৃষ্টির যে প্রশিক্ষণ তা গত দুই মাস বন্ধ রয়েছে। তবে এ প্রকল্পটি যেহেতু প্রশিক্ষণভিত্তিক তাই প্রকল্প বাস্তবায়নে প্রশিক্ষণের কোনো বিকল্প নেই। তবে এই মুহূর্তে সরাসরি প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা সম্ভব নয়। তাই ডিজিটাল প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে এ প্রশিক্ষণ চলমান রাখার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। পাইলট প্রকল্পটি আগামী ডিসেম্বর মাসে শেষ হওয়ার কথা।করোনাভাইরাসের বিস্তারের আগে অর্থাৎ মার্চ মাসের আগ পর্যন্ত প্রকল্পের আওতায় প্রায় ১১ হাজার প্রশিক্ষণার্থীকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

সালমান ফজলুর রহমান তিন ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে চলা অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে সবার বক্তব্য শোনেন। পরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন,‘প্রকল্পে অনেক ভালো ভালো কথা লেখা থাকে। তবে প্রকল্প বাস্তবায়নকারীদের সদিচ্ছা না থাকলে প্রকল্প বাস্তবায়ন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে। একই ভাবে প্রকল্পের আওতায় প্রশিক্ষণার্থীদেরও বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিতে হবে। অনেকেই আমার সাকসেস বা সফলতার রহস্য জানতে চান। আমি বলব, শুধু উদ্যোক্তা নয়, যে কোনো পেশাতেই সফলতার পেছনে শর্টকাট কোনো রাস্তা নেই। কঠোর পরিশ্রম না করলে জীবনে সফলতা আসবে না।’

বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নির্বাহী চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ‘উদ্যোক্তা সৃষ্টি ও দক্ষতা উন্নয়ন’ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক আবুল খায়ের মোহাম্মদ হাফিজুল্লাহ্ খান। তিনি জানান, ডিজিটাল প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে লাইভ ব্রডকাস্টের মাধ্যমে দেশব্যাপী প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনার উদ্যোগ দেশে এটাই প্রথম উদাহরণ হিসেবে বিবেচিত হবে। ৬৪ জেলায় ২৫ জন করে প্রশিক্ষণার্থী এক মাস অনলাইনে প্রশিক্ষণ পাবেন। কেউ যদি নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় অনলাইনে যুক্ত হতে না পারেন তিনি উদ্যোক্তা সহায়তা কেন্দ্রে বা জেলা প্রকল্প অফিসে এসেও অনলাইনে যুক্ত হওয়ার সুযোগ পাবেন।

জুমের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন, সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল, নরসিংদীর জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন, ফরিদপুরে জেলা প্রশাসক অতুল, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পরিচালক মো. জিয়াউল হক, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নির্বাহী সদস্য মোহসিনা ইয়াসমিন, এটুআই প্রোগ্রামের হেড অব সোশ্যাল ইনোভেশন ক্ল্যাস্টার মানিক মাহমুদ, রবি ১০ মিনিট স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা আয়মান সাদিকসহ প্রকল্পের প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত সরকারি বেসরকারি প্রতিনিধিরা আলোচনায় অংশ নেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন