নিহত ব্যক্তিরা হলেন আবুল কাশেম খান (৬২), তাঁর চাচাতো ভাই মনির খান বিল্লাল (৫২) ও তাঁদের ৮ বছর বয়সী নাতনি। আহত ব্যক্তিরা হলেন লাভলু মিয়া (৩৮), তাঁর স্ত্রী রেখা খান (২৩) ও ফাহিমা (৫)।

ঘটনাস্থলে আবুল কাশেম খান ও নাতনি নিহত হন। গুরুতর আহত মনির খানকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত আবুল কাশেমের ভাই রাশেদ খান বলেন, ভাতিজির স্বামী লাভলু কুয়েত থেকে দেশে ফিরেছেন। বিমানবন্দর থেকে তাঁকে নিয়েই বাড়িতে ফিরছিলেন আত্মীয়রা।
মনির খানের মৃতদেহটি হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক মো. আবদুল খান। বাকি তিনজন চিকিৎসাধীন। গাড়িতে চালকসহ ছয়জন ছিলেন।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন