বিশ্বের বেসরকারি সশস্ত্র সংগঠনের তালিকায় শিবির

বিজ্ঞাপন
default-image

২০১৩ সালে বিশ্বের ১০টি সক্রিয় বেসরকারি সশস্ত্র সংগঠনের তালিকার যুক্ত হয়েছে বাংলাদেশের রাজনৈতিক দল জামায়াতে ইসলামী-সমর্থিত ছাত্র সংগঠন ইসলামী ছাত্রশিবির। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক আন্তর্জাতিক তথ্য ও মতামত সরবরাহকারী ওপেন সোর্স সংস্থা হিসেবে পরিচিত আইএইচএসের ‘আইএইচএস জেনস ২০১৩ গ্লোবাল টেরোরিজম অ্যান্ড ইনসারজেন্সি অ্যাটাক ইনডেক্স’-এ বাংলাদেশের এ সংগঠনটির নাম উঠে আছে।
বিশ্বের বেসরকারি সশস্ত্র গ্রুপ—এই তালিকায় আরও আছে থাইল্যান্ডভিত্তিক বারিসান রেভোলুসি ন্যাশিওনাল, তালেবান, ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি অব ইন্ডিয়া-মাওয়িস্ট, ইরাকভিত্তিক আল-কায়েদা, হারাকাত আল-শাবাব আল-মুজাহিদিন (আল-শাবাব), কলম্বিয়াভিত্তিক ফার্ক, ফিলিপাইনভিত্তিক নিউ পিপলস আর্মি, সিরিয়াভিত্তিক জাবহাত আল-নুসরা এবং নেপালভিত্তিক ইউনিফাইড কমিউনিস্ট পার্টি নেপাল-মাওয়িস্টের নাম। সম্প্রতি আইএইচএসের ওয়েবসাইটে ওই তালিকা প্রকাশ করা হয়।
বিশ্বব্যাপী জঙ্গি ও অন্যান্য হামলার ভয়াবহতা বিশেষ করে আরব বসন্ত আন্দোলনের ছোঁয়া লাগা দেশগুলোর ওপর হামলা, আত্মঘাতী হামলা, আল-কায়েদার আরও পাঁচ বেসরকারি সশস্ত্র সংস্থার আত্মপ্রকাশ এবং আফ্রিকার সাব-সাহারা অঞ্চলে সন্ত্রাসের ভয়াবহতা বাড়াকে প্রাধান্য দিয়ে আইএইচএস এই সূচকটি তৈরি করেছে। এই তালিকার তিন নম্বরে এসেছে ছাত্রশিবিরের নাম।

আইএইচএস প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, ২০১৩ সালে বিশ্বব্যাপী সশস্ত্র সংগঠনগুলোর হামলা আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে। এ প্রসঙ্গে আইএইচএস জেনস টেরোরিজম অ্যান্ড ইনসারজেন্সি সেন্টারের ব্যবস্থাপক মাত্থিউ হেনম্যান উল্লেখ করেন, ২০০৯ সালে সারা বিশ্বে মোট সাত হাজার ২১৭টি হামলার ঘটনা জানা যায়। আর ২০১৩ সালে এ হামলার সংখ্যা ১৫০ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ১৮ হাজার ৫২৪টি। এসব হামলার ঘটনা পর্যালোচনা করেই এই সংগঠনগুলোর তালিকা তৈরি করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন