রান্নাঘরে জর্দার কৌটায় থাকা বিস্ফোরক পদার্থের বিস্ফোরণে বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার বিগদাইর ইউনিয়নে রেবেকা সুলতানা (৩৫) নামের এক গৃহবধূর দুই হাতের কবজি উড়ে গেছে। তাঁর স্বামী রেজাউল করিম ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। আজ সোমবার বেলা দুইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

রেজাউল করিমের সঙ্গে এই প্রতিবেদক অনেকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তাঁর মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। তবে রেজাউলের সঙ্গে সোনাতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম হোসেনের কথা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে ওসি বলেন, রান্নাঘরের মেঝে পরিষ্কার করতে গিয়ে জর্দার কৌটা নাড়াচাড়া করেন রেবেকা। এ সময় বিস্ফোরণে তাঁর দুই হাতের কবজি উড়ে যায়। তাঁকে বিকেল চারটার দিকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

রেজাউল পুলিশকে জানিয়েছেন, তাঁরা বগুড়া শহরে ভাড়া বাসায় থাকেন। সাত দিন আগে তাঁরা গ্রামের বাড়িতে যান। কেউ তাঁকে ফাঁসানোর জন্য জানালা দিয়ে এই বিস্ফোরক পদার্থ রান্নাঘরে ফেলে গেছে।

হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের রেজিস্ট্রার শফিক আমিন বলেন, রেবেকাকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। না নিয়ে গেলে এখানেই অস্ত্রোপচার করা হবে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন