default-image

মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সামাদ (৭০) শরীরে বুলেট নিয়ে ৪৪ বছর ধরে যন্ত্রণায় ভুগছিলেন। পাননি কোনো স্বীকৃতি। চিকিৎসার সহযোগিতা নিয়ে কেউ এগিয়েও আসেনি। গত সোমবার রাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। তাঁর বাড়ি নাটোরের লালপুরের ময়না গ্রামে।
১৯৭১ সালের ৩০ মার্চ লালপুরে আটজন মুক্তিযোদ্ধাকে ধরে ফেলে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী। পরে ময়না গ্রামের একটি আমগাছের সঙ্গে তাঁদের একসঙ্গে বেঁধে ব্রাশ ফায়ার করে। সৌভাগ্যক্রমে তাঁদের ভেতর থেকে বেঁচে যান আবদুস সামাদ। গুলি তাঁর ঊরুতে লেগেছিল।
গত রোববার আবদুস সামাদ হঠাৎ অসুস্থ বোধ করেন। নাটোরের বনপাড়ায় একটি বেসরকারি ক্লিনিকে চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে ফিরে আবারও অসুস্থ হয়ে পড়েন। গত সোমবার দুপুরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন