default-image

ভাষাসংগ্রামী, প্রাবন্ধিক ও রবীন্দ্রগবেষক আহমদ রফিককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রাজধানীর গ্রিনরোডের একটি বেসরকারি হাসপাতালে (গ্রিনলাইফ) তাঁর চিকিৎসা চলছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে বিছানা থেকে পড়ে গিয়ে কোমর ও মাথায় আঘাত পান তিনি।

আহমদ রফিকের এক অনুরাগী সাইফুজ্জামান সাকন তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান। অপর এক অনুরাগী শিক্ষক ইসমাইল সাদী প্রথম আলোকে জানান, বৃহস্পতিবার রাত দেড়টার দিকে বাথরুমে যাওয়ার জন্য বিছানা থেকে উঠতে গিয়ে পড়ে যান তিনি। এতে তাঁর মাথা ফেটে গেছে। কোমরের হাড়ও নড়ে গেছে। অস্ত্রোপচার লাগতে পারে বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

ইসমাইল সাদী বলেন, সমস্যার শুরু ফেব্রুয়ারি মাস থেকে। তিনি (আহমদ রফিক) ভাষাসংগ্রামী হওয়ায় ২১ ফেব্রুয়ারির আগে প্রতিদিন বিভিন্ন গণমাধ্যমে কথা বলেছেন, সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। তাতে বেশ অসুস্থ হয়ে পড়েন। তিনি আরও বলেন, মূলত গত ২৫ ফেব্রুয়ারি থেকে আহমদ রফিকের অসুস্থতা শুরু হয়। কোমরে প্রচুর ব্যথা ছিল, উঠতে-বসতে সমস্যা হচ্ছিল। চিকিৎসকের পরামর্শে যেসব ওষুধ খাচ্ছিলেন, চোখে ঠিকমতো দেখতে না পাওয়ায় ওষুধগুলোও মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহার করে ফেলেন। এতে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। মাঝে একদিন তিনি কাউকেই চিনতে পারছিলেন না। এরপরই এই ঘটনা ঘটল।

ভাষাসংগ্রামী আহমদ রফিকের স্ত্রী-সন্তান নেই। স্বজনদের মধ্যে ভাইয়েরা সবাই মারা গেছেন। একজন ভাগনে আছেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রে থাকেন।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন