আজ রোববার ইসি সচিবালয়ের অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ প্রথম আলোকে এসব তথ্য জানান। যেসব নাগরিকের বয়স ১৮ বছর বা তার বেশি, তাঁরা ভোটার হিসেবে নিবন্ধিত হবেন। আর ১৫ থেকে ১৮ বছরের নিচের বয়সী নাগরিকদের তথ্য সংগ্রহ করে রাখা হবে। বয়স ১৮ বছর পূর্ণ হলে তাঁদের ভোটার তালিকায় যুক্ত করা হবে।

একই সঙ্গে মৃত ভোটারদের তথ্য সংগ্রহ করে ভোটার তালিকা থেকে নাম বাদ দেওয়া হবে এই কার্যক্রমে। এর আগে সর্বশেষ ২০১৯ সালে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটারদের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছিল। ওই সময় একসঙ্গে তিন বছরের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছিল।

অশোক কুমার দেবনাথ বলেন, তিন সপ্তাহ পর্যন্ত বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহের কাজ চলবে। এরপর নির্ধারিত কেন্দ্রে ছবি, বায়োমেট্রিক ছাপ ও আইরিশ নেওয়া হবে। এখনো কেন্দ্র চূড়ান্ত করা হয়নি।

২ মার্চ ইসির দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, দেশে বর্তমানে মোট ভোটারের সংখ্যা ১১ কোটি ৩২ লাখ ৮৭ হাজার ১০। এর মধ্যে পুরুষ ৫ কোটি ৭৬ লাখ ৮৯ হাজার ৫২৯ ও নারী ভোটার ৫ কোটি ৫৫ লাখ ৯৭ হাজার ২৭ জন। এ ছাড়া ৪৫৪ জন হিজড়া ভোটার রয়েছেন।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন