কমলাপুর স্টেশনের কাছে ট্রেনের সঙ্গে কাভার্ড ভ্যানের সংঘর্ষে আহত লোকজনের মধ্যে পাঁচজনকে ২০ হাজার টাকা করে অর্থ সাহায্য দিয়েছেন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক। একই ঘটনায় আহত অপর পাঁচজন এ সাহায্য থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। কারণ, মন্ত্রী সন্ধ্যায় যখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আহত লোকজনকে দেখতে যান, তখন তাঁদের দেহে অস্ত্রোপচার চলছিল।

আজ বেলা দেড়টার দিকে রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের কাছে নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী একটি ট্রেনের সঙ্গে কাভার্ড ভ্যানের সংঘর্ষ হয়। এতে ছয়জন নিহত হয়েছেন। আহত লোকজনের মধ্যে ১০ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।
রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক সন্ধ্যা ছয়টার দিকে ট্রেনের সঙ্গে কাভার্ড ভ্যানের সংঘর্ষে আহত লোকজনকে দেখতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান। এ ঘটনায় আহত বাবুল, মিজানুর রহমান (আনসার সদস্য), জিন্দার মোল্লা, হারুনুর রশীদ ও জাবেদকে দেখে তাঁদের চিকিৎসার খোঁজ নেন। পরে তিনি প্রত্যেককে সাহায্য হিসেবে ২০ হাজার টাকা দেন। কিন্তু একই ঘটনায় আহত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অপর পাঁচজন অস্ত্রোপচারকক্ষে থাকায় তাঁরা রেলমন্ত্রীর সাহায্য পাননি।
তবে হাসপাতাল থেকে মন্ত্রীকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। তিনি আহত বাকি লোকজনকেও অর্থ সাহায্য পাঠিয়ে দেবেন বলে জানা গেছে।
যাঁরা মন্ত্রীর সাহায্য পাননি তাঁরা হলেন পোশাককর্মী মোস্তফা বাশার রয়েল (২৬), রিকশাচালক সুমন (২৪), দিনমজুর নাসির উদ্দিন নাসির, রড়মিস্ত্রি বিল্লাল হোসেন (৩৫)। অপরজন চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছেন বলে জানা গেছে।

বিজ্ঞাপন
বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন